নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আবু নাঈম মাসুমের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১ ফেব্রুয়ারি ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিওনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্যুরিস্ট পুলিশের সুপার মোঃ জিল্লুর রহমান।
তিনি বলেন, কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আবু নাঈম মাসুমের কর্মদক্ষতা ও সততা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। তিনি কক্সবাজারবাসীকে যে সেবা দিয়েছেন তা স্মরণীয়। দায়িত্বকে সেবা হিসেবে নিয়েছিলেন।
বিদায় অনুষ্ঠানে কক্সবাজার সরকারি গণগ্রন্থাগারের সহকারী পরিচালক ঋষিকেশ পাল, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অফিসের সহকারী পরিচালক সুমেন মন্ডল, ইন্সপেক্টর আব্দুল মালেক তালুকদারসহ সরকারি বিভিন্ন অফিসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এডি আবু নাঈম মাসুম গত ৩০ জানুয়ারী আগারগাঁও প্রধান কার্যালয়ে ই-পাসপোর্ট শাখায় বদলী হন।
২০১৬ সালের ১ জুন কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে সহকারি পরিচালক পদে তিনি যোগদান করেন।
কর্মস্থলে যোগদানের পর থেকে ঢেলে সাজান অফিসকে।  কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসকে শ্রেষ্টত্বের স্বীকৃতিও দিয়েছে পাসপোর্ট অধিদপ্তর।
২০১৭ সালের গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ঢাকার আগারগাঁওস্থ পাসপোর্ট অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ‘পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ-২০১৭’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আবু নাঈম মাসুমকে ‘শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা ২০১৬’ সম্মাননা দেয়া হয়।
রোহিঙ্গারা যাতে কোনভাবেই পাসপোর্ট না পায়, সে ব্যাপারে খুবই কঠোর ছিলেন এডি নাঈম। দালালী রোধ ও অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্তরিক ভূমিকার জন্য তিনি জেলাবাসীর কাছে প্রশংসিত।
দায়িত্বকালে অনাকাঙ্খিতভাবে কাউকে কষ্ট দিয়ে থাকলে মার্জনা কামনা করেছেন আবু নাঈম মাসুম। তিনি সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •