৩০ জানুয়ারী ২০২০ কক্সবাজার নিউজ ডটককম (সিবিএন) এ প্রকাশিত ওয়াহিদুজ্জামান বাবুর উদ্বৃতি দিয়ে হোটেল জামাল সী হাইটস নিয়ে সংবাদ সম্মেলন প্রসঙ্গে আমার বিবৃতি-প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে শীর্ষক প্রতিবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এটি ডাহা মিথ্যা, মানহানিকর ও ষড়যন্ত্রমূলক। সত্য যে, আমার ছেলে কারাবন্দী শাহজাহান আনসারীর সাথে বাবু তাঁর হোটেলটি ২ কোটি সেলামীতে ৫ বছরের জন্য হোটেল ভাড়ানামা চুক্তিপত্র সম্পাদন করে। যার প্রমাণ কক্সবাজার নোটারী পাবলিকের কার্যালয়ের ২০১৬ইং সালের ৬ডিসেম্বর সম্পাদিত হোটেল ভাড়া নামা চুক্তিপত্র্ যার রেজি: নং ৫৪। চুক্তিপত্রের সাক্ষীরা এখনও জীবিত আছেন। আছে ওয়াহিদুজ্জামান বাবুর একাউন্ট দেয়া সেলামীর টাকার অজস্র ডকুমেন্ট। বাবুর স্বাক্ষরিত ফ্ল্যাট মালিকদের কাছে প্রদত্ত অনাপত্তি পত্র (এনডিসি) আছে। শাহজাহান আনসারীর নামে প্রদত্ত বিদ্যুৎ বিল, ওয়াফাই বিলসহ শত শত ডকুমেন্ট চট্টগ্রামের বিখ্যাত ডেভলপার প্রতারক বাবু নিউজকে সাধু সাজাতে এবং অন্যের হক আর এ ক্ষেত্রে ব্যবহার করছেন প্রশাসনের কতিপয় প্রভাবশালীকে। চুক্তিপত্রটি মানবেন না, আদালত মানবেন না, ফ্ল্যা বিক্রির করে মালিকদের রেজিষ্ট্রি না দিয়ে নিঃস্ব বাবু আবার হোটেলটির মালিক সাজাতে তৎপর। তার থাকার সোয়ীটে এরা কারা? এতগুলো হাফ প্যান্ট পরা নারী আমার ছেলে মাদক কারবারী হলে বাবুর ভাষায় কেন তাকে দেখ ভালোর দায়িত্ব দিলেন? মিথ্যাচারের সীমা থাকা দরকার। সব মিথ্যা বন্ধ করে, মিথ্যা ও সাজানো মামলা দায়ের না করে ভাল মন নিয়ে প্রাপকদের সব ন্যায্য প্রাপ্য বুঝিয়ে দিন। বাবু সাহেব মনে রাখবেন- দুনিয়াতে মিথ্যাচার, ক্ষমতাবানদের বলয়ে থেকে বেঁচে গেলেন ঠিক আচে। কিন্তু পরকালে করবেনটা কী? মহান আল্লাহকে কী জবাব দিবেন? আমি বাবুর মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী
নুর মোহাম্মদ আনছারী
ঠিকানা- লারপাড়া,
কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল, ঝিলংজা, কক্সবাজা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •