এম বশির উল্লাহ, মহেশখালী:
মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: জামিরুল ইসলাম বলেছেন, বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের শতভাগ উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। বাড়াতে হবে শিক্ষার গুণগত মান। পড়ালেখায় ঝরেপড়ারোধ সার্বক্ষণিক খবর রাখতে হবে শিক্ষক ও অভিভাবকদের। সামান্য ভুলের কারণে একটি সম্ভাবনার প্রদীপ চিরজীবনের জন্য নিভে যেতে পারে।

সোমবার (২৭ জানুয়ারী) সকালে বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩ দিনব্যাপী বার্ষিক ক্রিড়া, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার ও ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউএনও এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, অল্প বয়সে আপনার সন্তানকে বিয়ে না দিয়ে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করুন। নিজের সন্তানকে সম্পদে রূপান্তর করুন। দেশের সম্পদ হওয়ার সুযোগ করে দিন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আনোয়ার পাশা চৌধুরী।

জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবির আজাদ।

বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন -উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার ফজলুল করিম, বঙ্গবন্ধু সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ হোছাইন, ইসলামী ব্যাংক মহেশখালী শাখার ব্যবস্থাপক আতিকুল্লাহ ইসলামাবাদী, আওয়ামী লীগ নেতা ফোরকান বিএ, উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোস্তফা আনোয়ার।

বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান উপলক্ষে দেশের বিখ্যাত ব্যক্তিদের নামে প্রথম দিনে ৩টি হাউস করে বিভিন্ন ধরনের পিঠা ও নানান অনুষ্ঠানের প্যান্ডেল ঘুরে দেখেন অতিথিরা।

পরে দুপুর ১টায় মহেশখালী আইল্যাল্ড হাইস্কুলের ২০২০ সালের এসএসসি পরীর্ক্ষাথীদের বিদায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জামিরুল ইসলাম। এসময় ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধরসহ মান্যগন্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •