মো.ফারুক, পেকুয়াঃ

পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়ন। কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প চলমান থাকলেও মধ্যম উজানটিয়াবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল ছাবের আহমদ ভায়া সড়কের ভেলুয়ার পাড়া-ফকির পাড়ার মাঝখানে একটি নতুন কালভার্ট নির্মাণ। কালভার্ট থাকলেও ঝুঁকিপূর্ণ থাকায় যান চলাচলতো দূরের কথা শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণ চরম ঝঁকি নিয়ে কালভার্ট পার হতো।
অথচ সেই সড়কটি দিয়ে শতশত শিক্ষার্থী ছাড়াও বিচ্ছিন্ন দ্বীপ করিয়ারদিয়া, জৈনুদ্দিন পাড়া, মিয়ার পাড়া, মালেক পাড়া, মৌলভী পাড়া ও ভেলুয়ার পাড়ার লোকজন চলাচল করে। খান বাহাদুর উচ্চ বিদালয়, ভেলুয়ার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আজিজিয়া কাছেমুল উলুম মাদ্রাসা, মঈনুল উলুম মাদ্রাসা, মহিলা মাদ্রাসা, আহমদীয়া সুন্নীয়া মাদ্রাসার কালভার্টের উপর দিয়ে চলাচল করে। এছাড়াও প্রতিদিন শতশত গাড়ি চলাচলতো রয়েছে। অবশেষে সেই দুঃখ আর রইলো না এলাকাবাসীর। গত ১৫ দিন আগে কালভার্টটির কাজ শুরু করেছে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় (পিআইও)।
পিআইও কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সরকারের উন্নয়নের অংশ হিসাবে পেকুয়া উপজেলায় বেশ কয়েকটি পিআইও কালভার্টের কাজ চলমান রয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিল মধ্যম উজানটিয়া কালভার্টটি। যেইটি দিয়ে প্রতিদিন প্রায় সাত হাজার মানুষ চলাচল করে থাকে। এলাকাবাসীর দাবির কারণে ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে কালভার্টটির কাজ শুরু করা হয়েছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জয় জায়েদ এন্টারপ্রাইজ কাজটি মূল ঠিকাদার। ইতোমধ্যে নিছের অংশের ডালাই শেষ হয়েছে। আগামী ১৫দিনের ভিতর কাজ শেষ হবে। ১মাসের ভিতর গাড়ি চলাচল করতে পারবে।
স্থানীয় শিক্ষার্থী তারেকুল ইসলাম, রুমেনা বেগম, শফিক বলেন, আমরা বহু কষ্টে সড়কটি দিয়ে স্কুল মাদ্রাসায় যাতায়াত করতাম। কারণ কালভার্ট ছিল অনেক ঝুঁকিতে। বর্তমানে কালভার্টটির কাজ শুরু হওয়ায় আমরা অনেক খুশি। দ্রুত কাজ শেষ করে উম্মুক্ত করে দেওয়ার আবেদন জানাচ্ছি।
ইউপি সদস্য জিয়াউল হক বলেন, উজানটিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ছাবের আহমদ ভায়া সড়কের উপর কালভার্টটি সংস্কার করার জন্য অনেকদিন ধরে চেষ্টা করে আসছিলাম। কপাল অনেক ভাল এখন সংস্কার নয় সম্পূর্ণ নতুনভাবে তৈরি হচ্ছে। প্রতিদিন প্রায় ৭হাজার মানুষের চলাচলের আর কোন অসুবিধা হবেনা।
ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বলেন, উজানটিয়া ইউনিয়নে কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। ইতোমধ্যে আরো বেশ কয়েকটি প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় গুরুত্বপূর্ণ সড়কে গুরুত্বপূর্ণ কালভার্টের কাজ শেষ হলে এলাকাবাসী অনেক উপকৃত হবে। বিশেষ করে শিক্ষার্থী, লবণ ও মৎস্যচাষীদের আর কোন অসুবিধা থাকবেনা।
পিআইও শুভ্রাত দাশ বলেন, উজানটিয়ায় বেশ কয়েকটি ব্রীজের পাশাপাশি মধ্যম উজানটিয়ার কালভার্টটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। খুব টেকসইভাবে কালভার্টটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এলাকাবাসী ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের চলাচলের সুবিধায় দ্রুত কাজ শেষ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •