দৈনিক শিক্ষা: জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে কলেজগুলোর পাঠদান শুরু করতে হবে। যেসব কলেজে সম্ভব সেখানে অ্যাসেম্বলির আয়োজন করতে হবে। আর অন্য কলেজগুলোতে সাউন্ড সিস্টেম দিয়ে হলেও সব শিক্ষার্থীকে জাতীয় সংগীত চর্চা করাতে হবে। এবিষয়ে শিগগিরিই নির্দেশনা জারি করা হবে বলে জানিয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) মহাপরিচালক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকা টিচার্স ট্রেনিং কলেজ অডিটোরিয়ামে ই-নথি বিষয়ক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আর বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। আরো উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মাউশি মহাপরিচালক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক। সাদেশের ১২০টি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, আইসিটি শিক্ষক ও কর্মকর্তারা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

মাউশি মহাপরিচালক বলেন, কলেজগুলোতে প্রতিদিন জাতীয় সংগীত দিয়ে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করার বিষয়ে চলতি সপ্তাহের মধ্যে চিঠি পাঠানো হবে। ইন্টারমেডিয়েটের শিক্ষার্থীদের নিয়ে হলেও অ্যাসেম্বলির আয়োজন করতে হবে। আর যেসব কলেজে অ্যাসেম্বলি আয়োজন করা সম্ভব নয়, সেখানে সাউন্ড সিস্টেম দিয়ে জাতীয় সংগীত বাজাতে হবে। আর শিক্ষার্থীরা এই কার্যক্রমে অংশ নেবে। এটা হবে মুজিববর্ষ উদযাপনের একটি অন্যতম পদক্ষেপ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •