হারুনর রশিদ,মহেশখালী:

মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের নয়া পাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ১৩ জানুয়ারী সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন সাদ্দাম হোসেন (৩৮),নুর আয়েশা (২৭),নুরুল আবচার (৩২),ছেনুয়ারা বেগম(৩৫),আলী হোসেন(৫৪)।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সুত্রে জানা গেছে আব্দু সবুর মাঝির নেতৃত্বে লেদু মিয়া,গোলাপ শাহ,সেলিম,আরিফুল্লাহ, সোলেমান ডাকাতসহ ১০/১২জনের একদল অবৈধ অস্ত্রধারী এ হামলার ঘটনা ঘটায়। হামলায় আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে আহতদের অবস্থা অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেছেন।

গুলিবিদ্ধ আলী হোসেন দাবি করেন, তাঁর একটি জমির কিছু অংশ কক্সবাজার শহরের হোটেল সাগারগাও’র মালিক শাহেদুল ইসলামের কাছে বিক্রি করার জন্য বায়না নামা হয়। সোমবার সকালে আব্দু সবুর মাঝি তার দলবল নিয়ে উক্ত জমি জবর দখল করতে যায়। কিন্তু জমির মালিক আলী হোসেন এর ছেলেরা বাধা দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে এলোপাড়াড়ি গুলি ছুড়তে ছুড়তে আলী হোসেনের বাড়ীতে ঢুকে যায় হামলাকারীরা। বাড়িতে প্রবেশ করে তারা হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। পুলিশ ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার পুলিশ পরিদর্শক বাবুল আজাদ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ পাটিয়ে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসা হয়। জিজ্ঞাসা বাদের জন্য ২জনকে আটক করা হয়।তারা হলেন সবুর মাঝি এবং দুদু মেম্বার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •