মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:
চকরিয়ার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের পর্যটক নামধারী দুর্বৃত্তের হাতে আবদুল আজিজ (৩২) নামের এক দোকানদার গুরুতর আহত হয়েছে। সে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড বাগান পাড়া এলাকার আবদুস শুক্কুরের পুত্র।
রবিবার দুপুর বারটার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ডুলাহাজারা সাফারি পার্ক গেইটে মোবাইল রিচার্জের দোকানে হামলার এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত দোকানদার আজিজকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কুমিল্লা থেকে আগত একটি পর্যটকের বাস দাঁড়ায় ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক গেইটে। এসময় স্থানীয় মাবুদ স্টোরে প্রবেশ করে সওদাগর ও বাসের এক যাত্রীর বিতর্ক শুরু হয়। একপর্যায়ে ব্যবসায়ী আবদুল আজিজকে ওই ব্যক্তি হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করতে দেখা যায়।
আহত আবদুল আজিজ জানান, পর্যটকবাহী একটি বাস থেকে নেমে এক ব্যক্তি তার মোবাইলে রিচার্জের টাকা দিতে বলে। টাকা পরের দেওয়ার কথা জানালে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। হঠাৎ ওই লোক দৌড়ে গিয়ে গাড়ির ভেতর থেকে হাতুড়ি ও লোহার রড় নিয়ে এসে প্রচন্ড আঘাত করতে থাকে। একপর্যায়ে তার জ্ঞানশুন্য হয়ে যাওয়ায় পরের ঘটনা বলতে পারেনি আজিজ। অপরদিকে স্বজনপ্রীতি করে অভিযুক্ত কুমিল্লার এ বাসটি ছেড়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেন স্থানীয় অনেকে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় মেম্বার ফরিদুল আলম জানান, আহতকে দেখতে তিনি হাসপাতালে যান। ঘটনার পর থানা পুলিশের ওসি ও ইউপি চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন। চিকিৎসা বাবদ দশ হাজার টাকা আহতের পিতার হাতে তুলে দিয়ে কুমিল্লার গাড়িটি চলে গেছে বলেও জানান তিনি।
ঘটনার পর ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •