সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
ক্রুয়েশিয়ার জাতীয় মসজিদের খতীব হুফ্ফফাজুল কোরআনের আন্তর্জাতিক বিচারক শাইখ ক্বারী হাফজ আব্দুল আজিজ বলেন, আল্লাহ নিজেই কুরআন নাজিল করেছেন এবং তিনিই কোরআনের হেফাজত করবেন। রসুল (সঃ) বলেন, যারা কুরআন শিখে ও শিখায় তারাই উত্তম মানুষ। সাথে সাথে ওই জাতি উত্তম যারা কুরআন হেফাজত করেন এবং মেনে চলেন। তিনি বলেন, কমিনিস্ট দেশ ক্রুয়েশিয়ায় তাঁরা অনেক কষ্টের মধ্যদিয়ে কোরআন হেফজ করেছেন।

বাংলাদেশের মানুষ ভাগ্যবান কোরআন শিখা ও শিক্ষার ব্যাপারে তারা ফ্রী। তিনি ক্রুয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশের কক্সবাজার এসে হাফেজ ও ক্বরীদের সাথে মিলিত হতে পেরে খুশী। তাই তিনি মহান আল্লাহর শুকরিয়া এবং কক্সবাজারবাসীকে ধন্যবাদ জানান।

১১ জানুয়ারী (শনিবার) বিকেলে কক্সবাজার শহরের দারুল আরক্বাম তাহাফিজুল কোরআন মাদরাসার নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

দারুল আরক্বাম তাহাফিজুল কোরআন মাদরাসার পরিচালক ক্বারী মাওলানা ইউনুস ফরাজীর সভাপতিত্বে শহরের পেশকার পাড়ার নতুন ক্যাম্পাসে উদ্বোধনী সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, সৌদি আরবের বিশিষ্ট দায়ী শাইখ ওলীউল্লাহ আশ শাওকী, আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত ক্বারী নাজমুল হাসান, হুফফাজুল কুরআন সংস্থা বাংলাদেশের সভাপতি ক্বারী মাওলানা জহিরুল হক।

দারুল আরক্বাম তাহাফিজুল কোরআন মাদরাসার নতুন ক্যাম্পাসের ভবনের মালিক মাওলানা আবুল কাসেম বলেন, এরকম একটি মহৎ কাজের জন্য তাঁর ভবন কাজে লাগাতে পেরে তিনি সত্যিই গর্বিত ও খুশী।

উল্লেখ্য, দারুল আরক্বাম তাহাফিজুল কোরআন মাদরাসা কক্সবাজারে একটি ব্যতিক্রম হেফজ মাদরাসা। শহরে এর আরো কয়েকটি শাখা রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •