মো: ফারুক, পেকুয়া:

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সতিনের সাথে ঝগড়া দিয়ে দুই শিশু সন্তানকে সর্বশরীরে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা করেছে দিলোয়ারা বেগম নামের এক পাষন্ড মা।

শনিবার(১১জানুয়ারী) দুপুর ২টায় পেকুয়া সদরের গোয়াখালী বটতলিয়া পাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে।

আহত চার বছর বয়সী আরিফা ও দেড় বছর বয়সী আসিফা একই এলাকার আরিফুল ইসলামের মেয়ে। পাষন্ড মায়ের নাম দিলোয়ারা বেগম।

স্থানীয় প্রতিবেশি গিয়াস উদ্দিন নামের একজন জানিয়েছেন, আরিফুল ইসলামের ১ম স্ত্রী দিলোয়ারা বেগম। তাদের ঘরে জন্ম নেয় গুরুতর আহত দুই শিশু। এরই মাঝে ২য় বিয়ে করে স্ত্রী নিয়ে চট্টগ্রামে চলে যায়। ২য় বিয়ে করায় স্বামী স্ত্রীর মাঝে প্রায় সময় মোঠোফোনে ঝগড়া হত। ইতোমধ্যে বানু নামের ২য় স্ত্রীকে গোঁয়াখালীর বাড়িতে নিয়ে আসেন। সতিনে সতিনে প্রায় সময় ঝগড়া হত। ঘটনার দিন দুপুরে তারা ঝগড়া দেয়। একপর্যায়ে দিলোয়ারা বেগম নিজ সন্তান আরিফা ও আসিফাকে দারালো দা দিয়ে কুপাতে থাকে। এক সময় দুই শিশু মাঠিতে নিস্তেজ হয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে গুরুতর আহত দুই শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পাষন্ড মাকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে দিয়েছে।

পেকুয়া সরকারি হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক মুজিবুর রহমান বলেন, এরকম ঘটনা আমার ডাক্তারী জীবনে খুব কম দেখেছি। মা দূরের কথা শত্রুরাও এমনভাকে কাউকে কুপাতে দেখিনা। আরিফার গলা, কব্জিসহ ৪টি আর আসিফার গলা, হাতসহ ৪টি কোপ রয়েছে। তার ক্ষত খুব মারাত্বক। তাদের জরুরীভাবে চট্টগ্রামে পাটানো হয়েছে।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, মর্মান্তিক ঘটনা। আটক করা হয়েছে মা নামের পাষন্ড দিলোয়ারা বেগমকে। ঘটনাটি কি কারণে ঘটেছে তার তদন্ত চলছে। যারাই এঘটনায় জড়িত তাদেরকে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •