ডেস্ক নিউজ:
চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি থানার শেরশাহ এলাকায় রিপন নামে এক যুবলীগকর্মী খুনের ঘটনায় দায়ের করা মামলার এক আসামি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম এমদাদ, বয়স ৩৮। শুক্রবার ভোরে নগরের বায়েজিদের মাঝিরঘোনা এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

নিহত এমদাদ বায়েজিদের শেরশাহ কলোনির ফরিদ আহমদের ছেলে।

বায়েজিদ বোস্তামি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রিটন সরকার বলেন, বায়োজিদে যুবক খুনের ঘটনায় দায়ের করা মামলার ৫ নম্বর আসামিকে গ্রেফতার করতে গেলে মাঝিরঘোনা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। সেখান থেকে এমদাদকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) রাতে শেরশাহ এলাকায় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহেদ ইকবালের বাসায় মেজবান খেয়ে ফিরছিলেন রিপন ও তার বন্ধুরা। ফেরার পথে তাদের ওপর হামলা হয়। স্থানীয়রা বলছেন, পূর্ব শত্রুতার জেরে ছুরিকাঘাতে রিপনকে খুন করা হয়েছে।

রিপন জালালাবাদ হকার সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ কর্মী ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •