এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের যৌথ উদ্যোগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১৮সালের ৩০ডিসেম্বর এদিনে একাদশ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে চকরিয়া উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে থানার রাস্তার মাথাস্থ সিস্টেম চকরিয়া কমপ্লেক্স মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে আলোচনা সভা।

চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম।

চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, উপজেলা আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সিনিয়র সহসভাপতি সরওয়ার আলম, সহ-সভাপতি ছৈয়দ আলম কমিশনার, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, মাতামুহুরী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিন বাবুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাউল হক, প্রচার সম্পাদক আবু মুছা, জেলা পরিষদের সদস্য ও বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলতান আহমেদ, রোস্তম শাহরিয়ার।

আলোচনা সভা ও র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক রতন কুমার সুশীল, ফেরদৌস ওয়াহিদ, সেলিম উদ্দিন লিটন, কাউন্সিলর রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম রাসেল, মুজিবুর রহমান লিটন, ফরিদুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আরিফ মইউদ্দিন রাসেল, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, চকরিয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি বাবলা দেবনাথ, আওয়ামীলীগ নেতা আহামদ রেজা, চিরিংগা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, জামাল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সিআইপি জাফর আলম, বদরখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আরিফ, সাধারণ সম্পাদক ভুট্রো সিকদার, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, চকরিয়া পৌর কৃষকলীগের সভাপতি সুলাল কান্তি সুশীল, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগ নেতা লায়ন আলমগীর চৌধুরী, মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, নুরুল আমিন টিপু, খুটাখালী আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জয়নাল আবেদিন মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক বাহাদুর হক, ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজি জামাল হোছাইন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল এহেছান চৌধুরী, আমির উদ্দিন বুলবুল, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন, চকরিয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সাইফু উদ্দিন মামুন, যুগ্ম সম্পাদক আবদুল হামিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজি জালাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম সোহেল, উপজেলা যুবলীগের অর্থসম্পাদক আজিজুল হক, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ হায়দার আলী, সাবেক সভাপতি শেফায়েতুল কবির বাপ্পী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজিদ হোসেন শাকিব, ফাসিয়াখালী আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার, বিএমচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম খোকন, পশ্চিমবড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডা.গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, চকরিয়া পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধুলু, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মারুফ, সাধারণ সম্পাদক আকিত হোসেন সাজিব, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজ প্রমুখ। এছাড়াও আলোচনা সভা র‌্যালীতে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ,অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা শেষে গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষে হাজারো নেতাকর্মী নিয়ে র‌্যালী বের হয়। কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়) আসনের সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম নেতৃত্বে র‌্যালীটি কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পৌরশহরের থানা রাস্তার মাথার থেকে বের হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিস্টেম কমপ্লেক্স এসে শেষ হয়।

সভায় প্রধান অতিথি এমপি জাফর আলম বলেছেন, স্বাধীনতা সংগ্রামের ডাক দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশকে পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করেছিলেন। দেশকে শত্রুমুক্ত করেছিলেন। বাবার শেখানো পথে জনগনের পাশে থেকে আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ^দরবারে মর্যাদা আসনে পৌঁছে দিয়েছেন। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর জনগনের বিপুল ভোটে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতা গ্রহনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রেখেছেন। এতে প্রমাণিত হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে নিরাপদ থাকবে বাংলাদেশ, দেশের ১৮ কোটি মানুষ পাবে সুন্দর জীবনের নিশ্চয়তা।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট আমলের ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম দেশের জনগণ কোনদিন ভুলে যাবেনা। মুলত বিএনপি-জামায়াত জোটের অপরাজনীতির সমুচিত জবাব দিতেই দেশবাসি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় এনেছেন। আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমানে বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে রূপান্তরিত হয়েছে। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এসেছে। জীবন যাত্রার মান উন্নত দেশের নাগরিকদের সমপর্যায়ে পৌচেছে। উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির এই ধারা অব্যাহত রাখতে জাতি আজ ঐক্যবদ্ধ। ##

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •