cbn  

শাহেদ মিজান, সিবিএন:

কক্সবাজারের কলাতলীতে পিংক-শোর হোটেল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, কিরিচ ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৯ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ১১টার দিকে কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের এসআই তৈয়মুরের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।

এ সময় উদ্ধার হওয়া মাদক ও আগ্নেয়াস্ত্রের সঙ্গে সম্পৃক্ত সন্দেহজনক তিনজনকে পুলিশ আটক করে। তবে পরে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এসআই তৈয়মুর জানান, জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে সদর থানা থেকে দেয়া ম্যাসেজে কলাতলীর সুগন্ধা পয়েন্টের দক্ষিণপাশের পিংক-শোর নামক হোটেল অফিস কক্ষে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে একটি কাটা বন্দুক, দুটি কিরিচ ও প্রায় ২০০ ইয়াবা জব্দ করা হয়। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে হোটেল পরিচালনায় থাকা কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়। পরে সম্পৃক্ততা না পেয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের ভারপা্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কবির জানান, মালিকানার বিরোধ থাকায় হোটেলটির জমির মালিক নাছির উদ্দীন মহসীন প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে এসব অস্ত্র ও মাদক কৌশলে রেখেছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। এ ব্যাপারে অধিকতর তদন্ত চলছে।

তবে হোটেল মালিক নাসির উদ্দীন মহসীন বলেন, জমির দলিল ঠিক থাকলেও ভুয়া কাগজ সৃষ্টি করে শহরের টেকপাড়ার অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম গায়ের জোরে হোটেলটি দখল করে নিয়েছে। এ নিয়ে মামলা ও অভিযোগের পর অভিযোগ চললেও আমরা হোটেল পরিচালনায় নেই। শনিবার রাতে হোটেল থেকে অস্ত্র ও ইয়াবা পাওয়ার খবর পেয়ে অভিযানের প্রায় ঘণ্টাখানেক পর ঘটনাস্থলে আসি। আমার বা আমার স্বজনদের অবাধ যাতায়াত যেখানে নেই, সেখানে তাদের সিকিউরিটির ভেতর আমরা কি করে এসব অস্ত্র ও ইয়াবা রেখে আসব? এমন প্রশ্ন করেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •