মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল(যশোর):

যশোরের শার্শার বাগআঁচড়ার আখি টাওয়ারে অবস্থিত মা মনি হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি বেসরকারী হাসপাতালে মঙ্গলবার সন্ধার পর সিজারিয়ানের ৫ দিন পর সেলিনা খাতুন (৪৫) নামে এক প্রসুতি মায়ের মৃত্যু হয়েছে। প্রসুতি সেলিনা শার্শার ইছাপুর গ্রামের রওশন আলীর স্ত্রী।

মৃত্যু সেলিনা খাতুনের আম্মা মনোয়ারা বেগম,যিনি সর্ব সময় হাসপাতালে সেলিনার পাশে ছিলেন তার কাছে যানতে চাইলে তিনি অভিযোগের তীর ছুড়ে দেন হাসপাত কর্তৃপক্ষের উপর।মনোয়ারা বেগম বলেন এ হাসপাতালে সঠিক ভাবে চিকিৎসা সেবা না পেয়ে আমার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

এবিষয়ে মা মনি ক্লিনিকের পরিচালক শরীফ আহম্মেদের কাছে মুঠোফোনে যানতে চাইলে তিনি বলেন,রোগী সুস্হ ছিল তবে ঠিক সময়ে ঔষধ না খাওয়ানোর কারনে রোগীর প্রেসার বৃদ্ধি পেয়ে মারা গেছে।

ঠিক সময় মত রোগীকে ঔষধ খাওয়ানো হয়নি কেন এমন পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিলে তিনি ব্যস্ত আছি এই বলে ফোন কেটে দেন।উলেখ্য গত ২৪॥২০১৯ তাং সেলিনা উক্ত হাসপালে ভর্তি হয়ে ডাঃ আবুল বাশারের তত্বাবধানে সির্জার করানো হয়।

সরেজমিনে হাসপাত পরিদর্শন করে দেখা যায় যে অসাস্থকর ও নোংরা পরিবেশে এ হাসপাতে রোগীদের চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে বাগআঁচড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক সুকদেব রায়ের কাছে যানতে চাইলে তিনি যানান আমরা এখনও কোন অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •