এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়া পৌর এলাকার কোরক বিদ্যাপীঠের সামনে রাতের আঁধারে কুড়িয়ে পাওয়া তাছলিমা জান্নাত (৭) নামে সেই শিশুকন্যাটির অবশেষে ঠাই হয়েছে কক্সবাজার রুমালিয়াছড়া শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূণর্বাসন কেন্দ্র। এর আগে ২৭ ডিসেম্বর রাতে কোরক বিদ্যাপীঠের সামনে কান্নারত অবস্থায় ওই শিশুটিকে কুড়িয়ে পাওয়ার পর শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) সকালে তাকে চকরিয়া থানায় হস্তান্তর করেন হাবীব নামের এক যুবলীগ নেতা। পরে থানার পক্ষ থেকে শিশুটিকে ওইদিন দুপুরে কক্সবাজার রুমালিয়াছড়া শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূণর্বাসন কেন্দ্রে হস্তান্তর করা হয়।

চকরিয়া থানার অপারেশন অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) রুহুল আমিন বলেন, শনিবার সকালে কুড়িয়ে পাওয়া শিশু তছলিমা জান্নাতকে চকরিয়া থানায় হস্তান্তরের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় সে তার নাম তছলিমা জান্নাত, পিতার নাম মো. ছলিম ও মাতার নাম মৃত লায়লা বেগম ছাড়া আর কিছুই বলতে পারেনি। শিশুটি আরও জানায়, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠের সামনে শিশুটির পিতা তার হাতে আটশত টাকা দিয়ে কিছু কিনে খাওয়ার কথা বলে চলে যায়।

এস আই রুহুল আমিন আরও বলেন, রাতের আঁধারে শিশুকন্যাটিকে ফেলে যাওয়ার পর তার পিতা আর ফিরে না আসায় মেয়েটি কান্নাকাটি করলে হাবীব নামের এক যুবলীগ নেতা তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। শনিবার সকালে তাকে চকরিয়া থানায় হস্তান্তর করা হলে নিয়ম অনুযায়ী ওইদিন দুপুরেই শিশুকন্যাটিকে কক্সবাজার রুমালিয়াছড়া শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূণর্বাসন কেন্দ্র হস্তান্তর করা হয়। কেউ শিশুকন্যাটিকে চিনে থাকলে চকরিয়া থানায় অথবা উপ প্রকল্প পরিচালক, কক্সবাজার রুমালিয়াছড়া শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূণর্বাসন কেন্দ্রে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন থানার উপপরিদর্শক এস আই রুহুল আমিন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •