পেকুয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের পেকুয়ায় পান ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। আহত লুৎফুর রহমান(৪৫) কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর বড়ঘোপ এলাকার আজিজুর রহমানের পুত্র।

শনিবার রাত ৯টার দিকে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের নুইন্যামুইন্যা সেতুর উপর এঘটনা ঘটে। আহত ব্যবসায়ী পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

ঘটনার পরপরই স্থানীয় ইউপি সদস্য আবু ছালেক এর নেতৃত্বে একদল গ্রামবাসী ঘটনায় জড়িত মোঃ শওকত নামের এক ডাকাতকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। আটক ডাকাত কোনাখালী ইউনিয়নের হাতুর বাপের বাড়ির ছৈয়দ নুরের ছেলে। এঘটনায় আবদু রহিম ছাড়াও আরো বেশ কয়েকজন পালিয়ে গেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

ইউপি সদস্য আবু ছালেক বলেন, রাত ৯টার দিকে মোহাম্মদ হাশেম নামের এক সিএনজি ড্রাইভার জানায় তার গাড়িতে অবস্থানরত একজনকে ছুরিকাঘাত করে টাকা ছিনতাই করেছে বেশ কয়েকজন ডাকাত। আহত লোকটি রাস্তায় পড়ে আছে। ঘটনাটি জানার সাথে সাথে বেশ কয়েকজন এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাটানোর পর পুলিশে খবর দিই। আমরাও নেমে পড়ি ডাকাতদলকে আটক করার জন্য। একপর্যায়ে বিলহাচুরার মৎস্য প্রজেক্টের একটি টং ঘর থেকে শওকতকে আটক করতে পারলেও তার সহযোগি আবদু রহিমসহ বাকিরা পালিয়ে যায়।

আহত লুৎফুর রহমান বলেন, আমি পান ক্রয় করার জন্য কুতুবদিয়া ঘাট পার হয়ে মগনামা লঞ্চঘাট থেকে রিজার্ভ সিএনজি নিয়ে মহেশখালী যাচ্ছিলাম। সাথে ছিল ৪লাখ ৩০হাজার টাকা। নুইন্যামুইন্যা সেতুর উপর আসামাত্র দুইজন লোক সিএনজি গতিরোধ করে। তাদের সাথে যোগদেন আরো কয়েকজন। গাড়ি গতিরোধ করার সাথে সাথে দুইজন গাড়ির ভিতর ঢুকে পড়ে। আমার কোমরের সাথে বাধা টাকার ব্যাগটি কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। তাতে আমি বাধা দিলে গাড়ি থেকে বের করে কোমরে ছুরিকাঘাত করে ব্যাগটি কেড়ে নেন। আমি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তারা পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর স্থানীয়রা এসে আমাকে উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, বদরখালী সড়কের নুইন্যামুইন্যা সেতুর উপর ও তার আশেপাশে সড়কে ছিনতাই ও ডাকাতি নিত্য ঘটনা। কিছুদিন আগেও একই স্থানে টমটম ছিনতাই করতে চালককে জবাই করে হত্যাচেষ্টা চালায় ডাকাতদল। রাস্তা গতিরোধ করে বেশ কয়েকবার সিএনজি ও টমটম ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত শওকতের নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ ডাকাতদল এমন অপকর্মে জড়িত বলে ধারনা স্থানীয়দের। এ সড়কে পুলিশি টহল জোরদারেরও দাবী জানান তারা।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, শওকত নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি কি তা গুরুত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •