ইমাম খাইর, সিবিএন:
জাতীয় পতাকা বিধিমালা ১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০) বাস্তবায়নে অভিযান চালিয়েছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।
১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয়ের এই দিনে সকাল থেকে পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদর সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহরিয়ার মুক্তার।
অভিযানের অংশ হিসেবে শহরের বড় বাজার, কালুর দোকান, রুমালিয়ার ছরাসহ শহরের প্রধান সড়কের আশপাশে দোকানগুলোতে জাতীয় পতাকা প্রতিস্থাপন করা হয়।
এই সড়কে চলাচলকারী ছোট-বড় যানবাহনসমূহেও বিধি মতে পতাকা উত্তোলন ও টাঙানোর জন্য তাগাদা দেয় জেলা প্রশাসনের অভিযানিক টীম।
অভিযান প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার মুক্তার জানান, জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশনা অনুযায়ী জাতীয় পতাকা বিধিমালা ১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০) বাস্তবায়নে গণসচেতনতামূলক অভিযান পরিচালিত হয়।
এ অভিযানে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং গাড়িতে ভুলভাবে প্রদর্শিত জাতীয় পতাকা সঠিকভাবে প্রতিস্থাপন করা হয়।
তিনি জানান, বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা বিধিমালা ১৯৭২(সংশোধিত ২০১০) এর আলোকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং প্রদর্শনে সচেতনতা তৈরির উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসনের তৈরিকৃত লিফলেট জনসাধারণের মাঝে বিতরণ করা হয়।
সাধারণ জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সঠিকভাবে পতাকা প্রদর্শনের এই অভিযানে সহযোগিতা করে এবং জেলা প্রশাসনের এই কর্মকান্ডকে সাধুবাদ জানায়।
অভিযানের বিষয়ে স্থানীয় অনেক দোকানদারের অভিমত, জাতীয় পতাকা উত্তোলন কিংবা প্রদর্শনের নিয়মের বিষয়ে তিনি কিছুই জানতো না। বিভিন্ন জাতীয় দিবসে তারা পতাকা উত্তোলন করলেও নিয়ম মাফিক হয়নি। এবারের বিজয় দিবসের প্রশাসনের সচেতনতামূলক অভিযান এবং লিফলেটের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা বিষয়ে অনেক কিছু জেনেছেন।