রামুতে মুক্তিযুদ্ধের বিজয়মেলার বর্ণাঢ্য উদ্বোধন ১৫ ডিসেম্বর

নীতিশ বড়ুয়া, রামু :
“মুক্তিযুদ্ধের বিজয় বীর বাঙ্গালির হাজার বছরের পরাধীনতার প্রতিশোধ’ প্রতিপাদ্যে কক্সবাজারের রামু স্টেডিয়ামে ১৫ ডিসেম্বর, রবিবার উদ্বোধন হতে যাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা ২০১৯।
বিজয় মেলার শুভ উদ্বোধন করবেন রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক চেয়ারম্যান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা। সভাপতিত্ব করবেন বিজয়মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান, কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল।
অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধাদদের সংবর্ধনা প্রদান করা হবে। এছাড়া বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে রামু স্টেডিয়াম, উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক ও চৌমুহনী স্টেশন সাঁজানো হয়েছে নতুন সাঁজে।
১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের পরদিন (১৭ ডিসেম্বর) থেকে ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ বিজয়মেলা উদযাপন করা হবে।
বিগত বছরের ধারাবাহিকতায় রামুর বিজয় মেলাকে দেশের বৃহত্তম বিজয় মেলায় রূপদান করতে ব্যাপক প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে রামু স্টেডিয়ামের সীমানা দেয়ালে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক মোরাল অংকন, মেলার মাঠে বিজয় টাওয়ার, বিজয় মঞ্চ, ষ্টল নির্মাণ, প্রধান সড়কে তোরণ নির্মাণসহ বিভিন্ন প্রস্তুতিমুলক কাজ সম্পন্ন হচ্ছে।
মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি ও মহাসচিব, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম জানান,
বিগত বছরের ধারাবাহিকতায় এবছর ও রামু ষ্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিতব্য মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা হবে সম্পুর্ণ জুয়ামুক্ত ও অশ্লীলতা মুক্ত।
মেলায় প্রতিদিনের অনুষ্ঠানে থাকবে, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংর্বধনা, জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের স্মৃতিচারণ, আবৃত্তি, নৃত্য, গান, নাটক।
দেশী-বিদেশী পন্যের শতাধিক ষ্টল নিয়ে বসছে এ বিজয় মেলা। মেলার নিরাপত্তায় পুলিশ ও আনসার বাহিনীর পাশাপাশি বিজয়মেলা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে তিন শতাধিক নেতা-কর্মী সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবেন। এছাড়া মেলার পুরো এলাকা সিসি ক্যামরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত থাকবে।
মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানান, আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি’র নেতৃত্বে রামুর বিজয় মেলা ইতোমধ্যে দেশের বৃহত্তম বিজয় মেলায়
রূপান্তরিত হয়েছে।
মুক্তিযদ্ধের চেতনা, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আস্থাশীল বীর মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক, সাংবাদিক, সাহিত্য, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে রামু মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা’২০১৯ উদযাপন পরিষদ গঠন করা হয়েছে। এতে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা পরিষদ, ১২১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরি পরিষদ ও ১৬টি উপ-পরিষদসহ মোট ৫০১ সদস্য বিশিষ্ট বিজয়মেলা উদযাপন পরিষদ গঠন করা হয়েছে।
মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি ও মহাসচিব রিয়াজ উল আলম বিজয় মেলা সফল ও সার্থক করতে সকলের অংশ গ্রহন ও সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার শহরের হরিপদ দাশের পরলোকগমনঃ শোক প্রকাশ

কমছে কয়লাচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্রে চিমনির উচ্চতা

ইরানে এবার সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ কমান্ডারকে গুলি করে হত্যা

আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ আজ

এক নজরে গাম্বিয়া-মিয়ানমার গণহত্যা মামলা

চীনের ভাইরাসে মৃত ১৭, বিশ্বজুড়ে শঙ্কা

হারপিক পানে এমপি নারায়ণ চন্দের ছেলে অভিজিতের মৃত্যু

সহকর্মীদের ফোন না ধরা নিয়ে যা বললেন সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব

চবিতে ছাত্রলীগের ২০ নেতাকর্মী আটক

ইরানি ব্যবসায়ীদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করল মার্কিন সরকার

আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ আজ, আশাবাদী বাংলাদেশ

যে দেশে প্রতিদিন ৯৫ জন হত্যার শিকার হচ্ছে

চকরিয়ায় ওবায়দুল কাদেরের সমাবেশে যেতে জড়ো হওয়াকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপে মারামারি

স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জন্য ২৫% সুবিধা নিশ্চিত করা হবে : ডিসি কামাল হোসেন

৯০ বছর পর জমির মালিক হাজির!

কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন বিএনপির আংশিক কমিটি অনুমোদন

টেকনাফের খালেকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

কচ্ছপিয়ায় মাদ্রাসার মাঠ ভরাটের উদ্বোধন ও দাখিল পরিক্ষার্থীদের বিদায়

সৈকত সাংস্কৃতিক উৎসব ২৪ ও ২৫ জানুয়ারি

২০ হাজার মানুষের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম একটি কাঠের সেতু