টেকনাফ প্রতিনিধি :

অসহায় মহিলাকে আশ্রয় দিয়ে তিন মাস পর আশ্রয় দাতার ২ বছরের ছেলেকে নিয়ে ওধাও হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

টেকনাফের নিবন্ধিত মোছনী রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, গত তিন মাস পুর্বে অসহায় পরিচয় দিয়ে ফাতেমা খাতুন নামে এক মহিলা মোছনী নিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি-ব্লকের আবু ছিদ্দিকের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। কয়েকদিন পর ওই মহিলাকে তার বাড়ির একপাশে বাসা করে দেয়। দিন যায়, মাস যায় এভাবেই সূসম্পর্কের মাধ্যমে তিন মাস অতিবাহিত হয়। হঠাৎ গত ২৯ নভেম্বর সকালে আশ্রয়দাতা মোছনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি-ব্লকের ৪ নং রুমের আবু ছিদ্দিক (এমআরসি নং- ১৭৪২) দুই বছরের ছেলে নুরুল আমিনকে নিয়ে ওই মহিলা ওধাও হয়ে যায়।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, খুব সকালে আবু ছিদ্দিকের ২ বছরের ছেলে নুরুল আমিনকে নিয়ে কক্সবাজারের গাড়িতে উঠতে দেখেছে।

তারা আরও জানান, আশ্রয় নেওয়ার আগে ওই মহিলা চট্টগ্রামে একটি গার্মেন্টসে চাকুরী করেছিল বলে জানাতো।

এদিকে সম্ভাব্য সকল স্থানে ছেলেকে খুঁজে না পেয়ে পিতা-মাতা প্রায় পাগলের মতো হয়ে গেছে। তাদের বুক ফাটা আর্তনাদে আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠছে।

এ েব্যাপারে ক্যাম্প ইনচার্জ বরাবর আবেদনও করেছেন আবু ছিদ্দিক। ছেলে এবং ওই মহিলাকে কেউ দেখলে আটক পুর্বক ০১৮৬৩৮৮৩৫৪৩ নাম্বারে কল দেওয়ার অনুরোধ করেছেন পিতা আবু ছিদ্দিক ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •