নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার শহরের ২নং ওয়ার্ডের উত্তর নুনিয়ারছড়ায় আদালতের ১৪৪ ধারা অমান্য করে জোরপূ্র্বক অবৈধভাবে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই এলাকার মৃত আবদুল জব্বারের পুত্র মাহবুবুল হক ও তার গং এই অভিযোগ করেছেন। গত ৬ ডিসেম্বর রাতে এই অবৈধভাবে বাড়ি নির্মাণ করা হয়েছে। ভাড়াটে লোকজন নিয়ে ওই এলাকার মৃত জামাল হোসেনের পুত্র শামসুল আলম, জাফর আলম, নূরুল আলম এবং মৃত আবুল হোসেনের পুত্র মোঃ রফিক ও মোজাম্মেল হক মাহবুবুল হক গংয়ের জমিতে জোর করে ওই অবৈধ বাড়ি নির্মাণ করেছেন।
ভুক্তভোগী মাহবুবুল হক জানান, ১৯৭৪ সালে মৃত আবুল হোসেন ও তার ভাই মৃত জামাল হোসেনের কাছ থেকে ২৬ শতক করে মোট ৫২ শতক জমি কিনেছিলেন মাহবুবুল হকের পিতা মৃত আবদুল জব্বার। যার রেজিস্ট্রি কবলা নং- ১৮/০৫/১৯৭৪ইং, তারিখ- ২০/০৫/১৯৭৪ইং। আবদুল জব্বারের নামে বিএস খতিয়ানও হয়েছে। যার নং- ৪৮৭। সেই থেকে আবদুল জব্বার ও তার ওয়ারিশগণ উক্ত জমিগুলো নির্বিগ্নে ভোগ দখল করে এসেছেন। তবে ৪৫ বছর পরে এসে হঠাৎ ওই জমি দখল করার চেষ্টা করছে মৃত জামাল হোসেনের পুত্র শামসুল আলম, জাফর আলম, নূরুল আলম এবং মৃত আবুল হোসেনের পুত্র মোঃ রফিক ও মোজাম্মেল হক গং। এর অংশ হিসেবে কিছুদিন ধরে তারা জোর করে ওই জমি দখল করতে চেষ্টা করে। এতে নিরুপায় হয়ে গত ২ ডিসেম্বর এডিএম কোর্টে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী মাহবুবুল হক গং। এর ভিতিত্তে ওই জমির স্থিতিতাবস্থা বজায় রাখতে ১৪৪ ধারা জারি করেন আদালত। আদালতে নির্দেশ মোতাবেক থানা থেকে ১৪৪ ধারার নোটিশ বিবাদীদের কাছে পাঠানো হয়েছে। কিন্তু ১৪৪ ধারা অমান্য করে গত শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) ওই জমিতে জোর করে রাতারাতি একটি টিনসেট বাড়ি নির্মাণ করেছে বিবাদীরা।
মাহবুবুল হক বলেন, বিবাদীরা পেশির জোর দেখিয়ে ভাড়াটে লোকজন নিয়ে ১৪৪ ধারা অমান্য করে আমাদের বৈধ জমি দখল করে রাতারাতি একটি বাড়ি নির্মাণ করেছে। আমরা বিষয়টি থানাকে অবহিত করেছি। আমরা আদালতের ১৪৪ ধারা অমান্যকারী এসব জবর দখলকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আকুল আহ্বান জানাচ্ছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •