ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
কক্সবাজার শহরের অলিগলিতে অসংখ্য বনী-আদম কনকনে শীতে দিন কাটায়। দিন যায় রাত যায়, তাদের খবর কে রাখে? সমাজের অন্য দশজনের মতো ভাসমান-অসহায় মানুষগুলোর শীত নিবারণের বস্ত্র নেই। শীতের রাতগুলো তাদের জন্য খুবই কষ্টের।
অফিস সময় নয়, তবুও এসব ছিন্নমূল মানুষের খোঁজে রাতেই বের হলেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন। সঙ্গে নিয়ে গেলেন কম্বলসহ বিভিন্ন রকমের শীতবস্ত্র।
নিজের হাতেই অসহায় ও শীতার্ত মানুষগুলোর গায়ে জড়িয়ে দিলেন কম্বল। খোঁজখবর নিলেন তাদের শারীরিক অবস্থার।
শুক্রবার রাতেই এভাবে শহরের হলিডে মোড় ও লাবনী পয়েন্টসহ বিভিন্ন খোলা জায়গায় খোঁজে বেড়ান ছিন্নমূল  মানুষগুলোর। তুলে দেন শীত বস্ত্র। শীতবস্ত্র পাওয়াদের মধ্যে রয়েছে বৃদ্ধ নারী-পুরুষ ও শিশু, যারা খোলা জায়গা ও ফুটপাতে আশ্রয় নিয়েছিল।
শীতবস্ত্র বিতরণকালে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সঙ্গে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোঃ শাজাহান আলি, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম সরওয়ার কামাল, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম মাহফুজুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল। এসময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, আনসার ব্যাটালিয়ন সদস্য ও বীচ কর্মীরাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। মধ্যরাতে কল্পনাতীতভাবে শীতবস্ত্র পেয়ে জেলা প্রশাসনের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে দুই শতাধিক ছিন্নমূল ও অসহায় পরিবার। এই তৎপরতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •