বলরাম দাশ অনুপম :

মানবপাচার মামলাগুলোর বিচারকার্যে গতিশীলতা বাড়ানো শীর্ষক এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মানবপাচার সংক্রান্ত মামলার বিচারকার্যে গতিশীলতা আনতে নোঙরকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন কক্সবাজারের বিজ্ঞ পিপি এডভোকেট ফরিদুল আলম। তিনি আরো বলেন-মানবপাচার এক প্রকারে বন্ধ হয়ে আসছিল কিন্তু উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মায়ানমার নাগরিকের কারণে যেটা আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে, সরকার মানব পাচারের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রাখলেও নানাবিধ কারণে এখনো পাচারকারীদের তেমনটা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনা যাচ্ছে না। জেলা আইনজীবি সমিতির কার্যালয় প্রাঙ্গনে নোঙরের নির্বাহী পরিচালক দিদারুল আলম রাশেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভার শুরুতেই নোঙর বিসি/টিআইপি প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো: আবুল হাশেম ভুঁইয়া প্রকল্পের কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। বাংলাদেশ কাউন্টার ট্রাফিকিং-ইন-পারসনস প্রোগ্রামের অধীনে মানব পাচার প্রতিরোধের লক্ষ্যে, ইউএসএআইডি-এর আর্থিক এবং উইনরক ইন্টারন্যাশনাল এর কারীগরি সহায়তায়, বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা নোঙর কর্তৃক বাস্তবায়িত (বিসি/টিআইপি) আইনগত সহায়তা ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ প্রকল্পের নিয়মিত কর্মসূচীর আলোকে কোর্ট ইন্সপেক্টর, জিআরও, পিপি, এপিপি ও নোঙরের প্যানেলভুক্ত আইনজীবিদের নিয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সকলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে মানবপাচার মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করা এবং নিরাপত্তা ও প্রতিরোধ ব্যাবস্থা জোরদার করার কোনো বিকল্প নেই বলে জানান সভার সভাপতি দিদারুল আলম রাশেদ। এতে আলোচনা করেন কোর্ট ইন্সপেক্টর মোঃ মাহাবুবুল আলম, জেলা মানবাধিকার সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট একরামুল হুদা, এপিপি এডভোকেট সাকী, প্রকল্পের প্রেগ্রাম অফিসার অংছাইনু মারমা প্রমুখ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •