মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ রাখার দায়ে একজন আসামীকে দু’দফায় ১৭ বছর সশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। কক্সবাজারের স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল নম্বর-৪ এর বিচারক এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মাহমুদুল হাসান এ আদেশ প্রদান করেন। বিষয়টি একই আদালতের এপিপি এডভোকেট এ.কে ফজলুল হক চৌধুরী সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরন হলো-মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের ছোট কুলালপাড়া এলাকার আবদুশ শুক্কুরের পুত্র আবদুল গফুরকে ২০১৬ সালের ১৪ আগস্ট হাতেনাতে অবৈধ অস্ত্র ও প্রচুর গোলাবারুদ সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনী গ্রেপ্তার করে। পরে গ্রেপ্তারকৃত আবদুল গফুরের বিরুদ্ধে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(এ) ও ১৯(এফ) ধারায় মহেশখালী থানায় ১০/২০১৬ নম্বর মামলা দায়ের করা হয়। যার জিআর মামলা নম্বর ২১৯/২০১৬ ও এসপিটি মামলা নম্বর ১৭৪/২০১৬। মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ ও অন্যান্য বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে বৃহস্পতিবার ২৯ নভেম্বর স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক মাহমুদুল হাসান অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে আবদুল গফুরের বিরুদ্ধে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(এ) ধারায় ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড এবং গোলাবারুদ রাখার অভিযোগে একই আইনের ১৯(এফ) ধারায় আসামী আবদুল গফুরকে পৃথক ৭ বছর সশ্রম কারাদন্ডাদেশ সহ মোট ১৭ বছর কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন। কারাদন্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামী আবদুল গফুর কারাগারে রয়েছে এবং বিচারক এই রায় ঘোষনার সময় আদালতের কাঠগড়ায় ছিলেন। মামলাটি রাষ্ট্রপক্ষে পরিচালনা করেন কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক ও এপিপি এডভোকেট এ.কে ফজলুল হক চৌধুরী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •