সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার জেলার রামু, উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলার ২০টি উচ্চ বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা-ইপসা’র আস্থা প্রকল্প কক্সবাজারের মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানি রোধে শপথ গ্রহণ
আস্থা প্রকল্পের উদ্যোগে ১৬ দিনব্যাপী নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০১৯ উদযাপন করা হয়।
“নারী-পুরুষ সমতা, রুখতে পারে সহিংসতা” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ পক্ষ উদযাপনে আস্থা প্রকল্পের মাঠ পর্যায়ের অংশীদার সংগঠন – ইপসা নানান কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২৫ নভেম্বর প্রায় ১৩,৫০০ শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-শিক্ষিকার অংশগ্রহণে কক্সবাজার জেলার রামু, উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলার ১৬টি উচ্চ বিদ্যালয় ও ৪টি মাদ্রাসায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
“আমি শপথ করছি যে, একজন সচেতন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী হিসেবে নারী ও শিশুর প্রতি কোন প্রকার নির্যাতন করবো না। আমি আমার পরিবার, সমাজ, প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাট, গনপরিবহনসহ সকল স্থানে নারী ও শিশুর প্রতি যেকোন প্রকার নির্যাতন প্রতিরোধে সচেষ্ট থাকবো এবং সম্মিলিত ভাবে প্রতিরোধ করবো। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সকল প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী অভিযোগ কমিটি গঠন ও পরিচালনা এবং অভিযোগ বাক্স স্থাপন বিষয়ে নিজ নিজ অবস্থাান থেকে সচেষ্ট থাকব।“ এমনই দৃপ্ত প্রত্যয়ে জেগে উঠেছিল হাজারো শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।
অনুষ্ঠানের শুরতেই শিক্ষকগণ উক্ত দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন এবং সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। এরপর আস্থা প্রকল্পের প্রোজেক্ট কোর্ডিনেটর, সোশ্যল মোবিলাইজেশন অফিসার, কেস ম্যানেজার ও কেস ওয়ার্কার নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উদযাপনের তাৎপর্য তুলে ধরেন। পরিশেষে প্রধান শিক্ষক সকল প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী অভিযোগ কমিটি গঠন বিষয়ে আলোচনা করেন এবং সকলের উদ্দেশ্যে উক্ত শপথ বাক্যটি পাঠ করে শুনান।
উক্ত শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানটি ইউএনএফপিএ এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের কারিগরি সহযোগিতায়, বাংলাদেশে অবস্থিত নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের অর্থায়নে, প্রকল্পের মাঠ পর্যায়ের অংশীদ্বার প্রতিষ্ঠান ইপসা আয়োজন করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •