ঈদগাঁও সংবাদদাতাঃ

কক্সবাজার সদরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঈদগাহ্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের আসন্ন ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন স্বচ্ছ, জবাবদিহিতামূলক ও প্রভাবমুক্ত করার দাবী জানিয়েছে অভিভাবকরা। সেই সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে কোনো ধরনের লুকোচুরি হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা।
রবিবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টায় ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে শতাধিক অভিভাবকের উপস্থিতিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই দাবির কথা জানানো হয়েছে।
অভিভাবকদের পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মাহমুদুল করিম গুন্নু।
সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাহ্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খুরশিদুল জন্নাত ২০১০ সালে দায়িত্ব গ্রহনের পর বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনের কোন তপশীল অভিভাবকদের জানার সুযোগ দেননি। প্রতিবারই তিনি নিজের অনুগত লোকদের নিয়ে অতি সংগোপনে পছন্দের কমিটি গঠন করেছেন। ফলে আমরা প্রকৃত অভিভাবকরা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারিনা। প্রতিষ্ঠানটিও যোগ্য নেতৃত্ব প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছে। আসন্ন ম্যানেজিং কমিটি গঠন কার্যেও প্রধান শিক্ষক ব্যাপক কারচুপি ও লুকোচুরির পাঁয়তারা করছেন। ফলে এবারও আমরা প্রকৃত অভিভাবকরা ভোটাধিকার প্রয়োগ থেকে বঞ্চিত হবার আশংকা করছি। পাশাপাশি আমরা আগ্রহী ও সচেতন অভিভাবকবৃন্দ ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক ক্যাটাগরীতে নির্বাচনের সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হতে যাচ্ছি।
গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, এবার ভোট অধিকার থেকে আমাদের বঞ্চিত করা হলে মেনে নেওয়া হবে না। দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলব। এমতাবস্থায় ঈদগাহ্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের আসন্ন ম্যানেজিং কমিটি গঠন প্রক্রিয়া সংশ্লিষ্ট সকলের জ্ঞাতসারে, উৎসব মুখর ও অংশ গ্রহনমূলক পরিবেশে অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আপনাদের মাধ্যমে আমরা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের আন্তরিক হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
এ সময় অর্ধ শতাধিকেরও অধিক সচেতন অভিভাবাকগন উপস্থিত ছিলেন।
এরমধ্যে কয়েকজন অভিভাবক বর্তমান প্রধান শিক্কক ও বর্তমান কমিটির অব্যাহত অনিয়ম ও দুর্ণীতি তুলে ধরে সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।
সংবাদ সম্মেলনে অভিভাবকদের উপস্থিত ছিলেন- শফিউল আলম, সেলিম উল্লাহ মেম্বার, রেজাউল করিম, কামাল উদ্দিন, আবদু রহিম, নুরুল আবছার, দলিলুুর রহমান, রমজান আলী, প্রভাত কর্মকার, আবদুল হক, সুলতান আহমদ, রুহুল আমিন, আবু তাহের, দিলিপ দে, ইসলাম, নুুুরুল ইসলাম, রাজিব দাশ, আবুল কালাম, সনজিত দাশ, আপন কান্তি দে, আমিনুল হক মিন্টু, আবুল হোসেন ও মোহাম্মদ আলী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •