আবুল কালাম, চট্টগ্রাম :

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের ইপিজেড থানাধীন দক্ষিণ হালিশহর এলাকার রফিক কোম্পানির ভাড়া বাসা থেকে এক পোষাক কর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছ পুলিশ।

রোববার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।
নিহতের নাম হলো রোকসানা বেগম (২৯) সে বরিশাল থেকে বকেয়া বেতনের টাকা তুলতে চট্টগ্রামে আসার তিন দিনের মাথায় খুনের শিকার হন। পুলিশের ধারণা, পূর্ব বিরোধের জেরে স্বামী দেলোয়ার হোসেনই তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে পালিয়েছেন।

স্বামী গার্মেন্টসকর্মী দেলোয়ারকে সন্দেহ করলেও পুলিশ এখনও তাকে আটক করতে পারেনি।

ইপিজেড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ ওসমান গণি বলেন, ‘নিহত রোকসানা আক্তার ইপিজেড এলাকার ইস্ট বেঙ্গল নামে একটি গার্মেন্টসে কাজ করতেন। একই কারখানায় তার স্বামী দেলোয়ারও কাজ করতেন। তাদের দু’জনেরই বাড়ি বরিশালে। দু’জনের মধ্যে দাম্পত্যকলহ নিয়ে বরিশালের আদালতে একটি মামলা চলছিল। পরে বিরোধ মিটিয়ে চট্টগ্রামে এসে চাকরির পাশাপাশি একটি ভাড়া বাসায় উঠছিলেন দু’জনে। এরই মধ্যে রোকসানা গত মাসে চাকরি ছেড়ে বরিশালে চলে যান।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরশু বকেয়া বেতনের জন্য চট্টগ্রামে এসে বোনের বাসায় উঠেন রোকসানা। এরই মধ্যে ২৪ নভেম্বর সকালে সবাই চাকরিতে চলে গেলেও দুপুরে বরিশাল যাওয়ার কথা ছিল রোকসানার। কিন্তু সন্ধ্যার দিকে বোন-দুলাভাই এসে দেখেন রুমের দরজা বাহির থেকে বন্ধ। পরে তারা দরজা খুলে দেখেন বিছানায় পরে আছে রোকসানার নিথর দেহ। পরে থানায় খবর দিলে আমরা মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠাই। প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হচ্ছে স্বামী শ্বাসরোধ করে তাকে খুন করে পালিয়ে গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •