জাগো নিউজঃ

পৃথিবীর বৃহত্তর সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে বসার জন্য স্থাপিত কিটকট চেয়ার পর্যটকদের জন্য বিনামূল্যে ব্যবহারের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। এছাড়া কক্সবাজারের সব হোটেল-মোটেল ও গেস্ট হাউজগুলো কৌশলগত পরিবহন পরিকল্পনার (এসটিপি) আওতায় আনার সুপারিশ করেছে কমিটি।

রোববার (২৪ নভেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সপ্তম বৈঠকে এসব সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, মো. জিল্লুল হাকিম, মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী, আনোয়ারুল আশরাফ খান এবং ফরিদা খানম অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে কিটকট চেয়ারগুলোর অর্ধেক বিনামূল্যে ব্যবহার করতে দেয়ার জন্য ২০১৬ সালে নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট। বিনামূল্যের চেয়ার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অব্যবস্থাপনা চলছিল। সম্প্রতি সমুদ্র সৈকত থেকে এসব চেয়ার একেবারে উধাও হয়ে গেছে। এমনকি সাইনবোর্ডও সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এ জন্য সরকারি ব্যবস্থাপনায় সেখানে পর্টকদের বিনামূল্যে বসার সুপারিশ করেছে কমিটি।

বৈঠকে চট্টগ্রামে ডিসি হিল পার্কের সংস্কারের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দর থেকে লালখানবাজার পর্যন্ত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে গৃহীত প্রকল্পের কাজ দ্রুতগতিতে শেষ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •