নিজস্ব প্রতিবেদক, পেকুয়া:

পেকুয়া সদর ইউনিয়ন থেকে বিভক্তি করে অবহেলিত জনপদ মেহেরনামা এলাকার উত্তর মেহেরনামা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নবগঠিত পিইসি কেন্দ্র পরিদর্শন করলেন কক্সবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কমকর্তা শফিউল আলম ও পেকুয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) মীকি মারমা। ১৮ ও ১৯ নভেম্বর এই নবগঠিত কেন্দ্রে আসেন। আগত মহোদয়গণকে পিইসি কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির ও বিদ্যালয় এসএমসির সভাপতি পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা নাছির উদ্দিন বাদশা বই প্রদানের মধ্য দিয়ে স্বাগত জানিয়ে পরিদর্শন করেন। সূত্রে প্রকাশ পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মেহেরনামা মৌজা ৩টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। অবহেলিত বঞ্চিত জনপদ। বিধায় উত্তর মেহেরনামা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাগগুজারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মেহেরনামা প্রাথমিক বিদ্যালয়, তালিমুল আতফাল এবতেদায়ী ও মনিরুল উলুম এবতেদায়ী মাদ্রাসা সহ ৫টি প্রতিষ্ঠান ১৭৯ জন শিক্ষার্থী নিয়ে নতুন এই পিইসি কেন্দ্রটি অনুমোদিত হয়ে যথানিয়মে পরীক্ষা শুরু করা হয়। এই নবগঠিত পিইসি কেন্দ্রটি স্থাপনের জন্য গত ৭ মে পেকুয়া উপেজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান বরাবরে আবেদন করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য বিদ্যালয়ের এসএমসির সভাপতি নাছির উদ্দিন বাদশা। পেকুয়া উপজেলা শিক্ষা কমকর্তা ছালামত উল্লাহ যথানিয়মে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট সঠিক তথ্য প্রেরণের মধ্য দিয়ে এই কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা হয়। দীর্ঘ ৮৫ বছর পর এই বঞ্চিত অবহেলিত জনপদ মেহেরনামায় বিভক্তি হয়ে নতুন এই কেন্দ্রটি নাছির উদ্দিন বাদশার একক প্রচেষ্টার মাধ্যমে আজকে মেহেরনামার কঁচিকাঁচা শিক্ষার্থীরা বাড়ীর পাশে পরীক্ষা দিতে পারছে। এই মেহেরনামা জনপদটি ইউনিয়নে রূপান্তরের দাবীটিও বাস্তবায়নের পথে হতে চলেছে বলে জানান তরুন এই রাজনীতিবিদ নাছির উদ্দিন বাদশা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •