প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রতিহিংসার বিচারে কারাবন্ধি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে এক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৩ নভেম্বর শনিবার, বিকাল ৩ টায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন-বিএনপির কেন্দ্রিয় মৎস্যজীবি বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য লূৎফুর রহমান কাজল। প্রধান অতিথি বলেন-বাংলাদেশের ছাত্র, শিক্ষক, শ্রমিকসহ সর্বস্তরের মানুষ এখন সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। এটি সরকার পতনের লক্ষণ। অতীতেও অনেক সরকার জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ক্ষমতায় ঠিকে থাকতে পারেনি বর্তমান সরকারও আর বেশিদিন ক্ষমতায় থাকতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন, কক্সবাজার সদর রামু আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক লুৎফুর রহমান কাজল। তিনি সরকারের উদ্দেশে বলেন, ‘অবিলম্বে এবং কাল বিলম্ব না করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন। বেগম জিয়াকে মুক্তি না দিলে আপনাদেরও শেষ রক্ষা হবে না। তিনি প্রথম আলো পত্রিকার উদ্বৃতি দিয়ে আরো বলেন, সরকার উন্নয়নের নামে কক্সবাজারের মানুষের সাথে প্রতারণা করছে। মহেশখালীর কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র কক্সবাজারের হাজার কোটি টাকার পর্যটনশিল্পসহ সবকিছু ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাবে। সুন্দরবনের পাশে রামপালে একটি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কারণে সেখানকার পরিবেশ বিপন্ন হতে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে সরকার মহেশখালীতে ১৭টি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প করতে যাচ্ছে। এগুলো হলে কক্সবাজারে বড় ধরনের পরিবেশগত বিপর্যয় নেমে আসবে। ধীরে ধীরে পর্যটন রাজধানী কক্সবাজার বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়বে। এ ধরনের প্রকল্প থেকে সরে আসতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপি’র এই কেন্দ্রীয় নেতা।

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদাত হোসেন রিপন এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফাহিমুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন-জেলা বিএনপি সিনিয়র সহ-সভাপতি এটিএম নূরুল বশর চৌধুরী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল কাশেম, সিঃ যুগ্ম আহবায়ক এড. আবদুল কাইয়ুম,জেলা ব্্িএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এম. মোকতার আহমদ, আতাউল্লাহ বোকারী, জেলা যুবদলের সভাপতি সৈয়দ আহমদ উজ্জ্বল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক এড. মোঃ ইউনুছ, জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইফুর রহমান নয়ন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মিজানুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর রহমান, সদর উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহীনুল কাদের লিমন, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি এনামুল হক, মহেশখালী উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি রিয়াদ মুহাম্মদ আরফাত, রামু উপজেলা আহবায়ক আবছার কামাল, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলার সভাপতি বেলাল উদ্দিন, মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলার সভাপতি আসিফ নেওয়াজ, টেকনাফ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক হারুনুর রশিদ, আইন কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক আবু তাহের মিজবাহ, কক্সবাজার কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক আবদুল হামিদ, সিটি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি ইমরান সিকদার, সদর উপজেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর, সিটি কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আল আসিফ, টেকনাফ উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব খোরশেদ আলম, সদর ছাত্রদল নেতা জাইনুদ্দিন জনি, উখিয়া উপজেলার যুগ্ম আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মামুন।

উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আমির আলী, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ আবেদীন সবুজ,হারুনর রশিদ, সদস্য ছানা উল্লাহ আবু, পৌর যুবদলের সভাপতি আজিজুল হক সোহেল, জেলা ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সরওয়ার রোমন, সাধারণ সম্পাদক মনির উদ্দিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক আবছার কামাল, হাজী আবদুর রহিম, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার জসিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ইলিয়াছ, পৌর শ্রমিক দলের সভাপতি এস্তাক আহমদ, শহর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন, মাতামুহুরী উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নেজাম উদ্দিন, সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হুদা শাহেদ, যুগ্ম সম্পাদক রুবেল মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, শহর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইনজামামুল হক, ছাত্রদল নেতা, হুমায়ুম কবির হিমু, রেজাউল করিম, মোহাম্মদ হোসেন মাদু, ওসমার সরওয়ার টিপু, মনছুর আলম, মঈনুল হাসান মান্না, রাজু আহমেদ, রিদুয়াদুল হক, জয়নাল আবেদীন, জামশেদ আলম, এখলাছুর রহমান, এহেছানুল করিম, মোর্শেদ আলম রনি, মোঃ শামীম, আজিজুর রহমানসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। সমাবেশের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন সাবেক সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক একরামুল হক।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •