এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :

কক্সবাজারের উত্তর বনবিভাগের নিয়ন্ত্রনাধীন চকরিয়ায় উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নস্থ ফুলছড়ি রেঞ্জের আওতাধীন বনবিটের বনাঞ্চলের গহীন অরন্য থেকে আনুমানিক দুই বছর বয়সের একটি মা হাতি বাচ্চার গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে বনকর্মীরা। শনিবার (২৩নভেম্বর) দুপুরের দিকে ফুলছড়ি বনবিটের বনকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে বিটের বাইদ্যা ঝিরি নামক এলাকা থেকে হাতির বাচ্চার মরদেহটি উদ্ধার করে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও বনকর্মীরা জানায়, শনিবার সকালের দিকে ফুলছড়ি রেঞ্জের বনাঞ্চলের ভেতরে কয়েকজন কাঠুরিয়া কাঠ কুড়াতে যায়। এ সময় বাইদ্যা ঝিরি এলাকায় একটি বাচ্চা হাতি মৃতবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে বনাঞ্চলে টহলরত বনকর্মীদের হাতির মৃত্যুর খবরটি জানায়। বনবিটের একদল বনকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে বাচ্চা হাতির মরদেহটি দেখে তাৎক্ষনিক ভাবে ফুলছড়ি বনবিট কর্মকর্তা ও রেঞ্জ কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। পরে হাতির মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের ভেটেরিনারি সার্জন মোস্তফিজুর রহমান ঘটনাস্থলে পৌছে ওই মৃত বাচ্চা হাতির প্রাথমিক সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন। সুরুতহাল রিপোর্টের পর পরই পাশ্বোক্ত বনাঞ্চলের ভেতরে গর্ত করে মরদেহটি পুঁতে ফেলা হয়।

ডুলাহাজারাস্থ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের ভেটেরিনারি সার্জন মোস্তফিজুর রহমান বলেন, মারা যাওয়া হাতির বাচ্চাটি মহিলা শ্রেণীর হাতি ছিল। যার বয়স প্রায় দুই বছরের কাচাকাছি হবে। বাচ্চাটি মারা যাওয়ার পূর্বে পর্যন্ত দুগ্ধ বাচ্চা ছিল। সুরুতহাল রিপোর্ট করতে গেলে আশ পাশের এলাকায় দু:গন্ধে ছড়িয়ে পড়ে। সম্ভবত বাচ্চাটি ৩ থেকে ৪ দিন পূর্বে মারা গেছে। তবে অসুস্থ জনিত ও রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণে এ ছোট্ট মা হাতির বাচ্চাটি মারাগেছে গেলে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

খুটাখালীস্থ ফুলছড়ি বনবিট কর্মকর্তা মো: আকরাম আলী বলেন, বিটের সংরক্ষিত বনে বনকর্মীরা টহলকালীন সময়ে মৃত বাচ্চা হাতি পড়ে থাকতে দেখতে পেয়ে খবর দেয়। পরে ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহটি উদ্ধার করে সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়। হাতির এ মৃত্যুর বিষয় নিয়ে শনিবার সন্ধ্যায় চকরিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরী রুজু করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •