মোঃ নেজাম উদ্দিনঃ

মাত্রাতিরিক্ত যানবাহনের কারণে কক্সবাজার শহরে হাঁটাচলা দুঃসহ হয়ে পড়েছে। গাড়ি নিয়ে তো দূরের কথা, খালি পায়ে হাঁটতেও ঘটছে বিপত্তি। প্রতিনিয়ত ছোট বড় দুর্ঘটনা তো আছেই। প্রয়োজনের অতিরিক্ত টমটম-ইজি বাইকের কারণে এমন দশা বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগীরা। আর যানজট নিরসনে প্রশাসনও বিভিন্ন সময় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে। তবে কোন উদ্যোগই সফল হচ্ছে না।
এদিকে, কক্সবাজার শহরকে যানজটমুক্ত দুইটি সড়কে ওয়ানওয়ে পদ্ধতি চালু করেছে কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে আইবিপি সড়কে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্য মনিরুল জানান, শহরের যানজট বেড়ে যাওয়ায় দুটি পয়েন্টকে ওয়ানওয়ে করা হয়েছে। ভোলা বাবুর পেট্রোল পাম্প হয়ে শুধু দক্ষিণমুখী গাড়িগুলো ঢুকবে, আইবিপি সড়ক হয়ে বের হবে।
কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাবুল চন্দ্র দে জানান, ভোলাবাবু পেট্রোল পাম্প হয়ে হাসপাতাল মুখি যেসব গাড়ি যাতায়াত করে তাতে এলোমেলো চলাচলে হাসপাতালে যাওয়া রোগীদের সমস্যা সৃষ্টি হয়। তাই হাসপাতালমুখি রোগী ও যাতায়াতকারিরা যেন হাসপাতালে সহজে পৌঁছতে পারে এবং আইবিপি রোড় হয়ে বের হওয়া যায় এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে।
তিনি আরো জানান, যানজট কমাতে ভোলা বাবুর পেট্রোল পাম্পের পাশের সড়কের বেশ কয়েকটি ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে।
ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি ওয়ানওয়ের দুইটি পয়েন্টে জেলা পুলিশের ১২ জন সদস্য দুই শিফটে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছে। ওয়ানওয়ে পদ্ধতি চালুর পর থেকে যানজট কিছুটা নির্বাচন হয়েছে বলে দাবি করেন ট্রাফিক পুলিশের এই কর্মকর্তা।
ট্রাফিক পুলিশের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে সাধারণ পথচারীরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •