মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র বৈধ হওয়া আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট আবদুল খালেকের মনোনয়নপত্র বাতিল চেয়ে অন্য ২ জন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নুরুল হক ও সোহেল রানা আপীল কর্তৃপক্ষ ও কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিসার এস.এম সাহাদাত হোসেনের কাছে আপীল করেছেন। আপীল আবেদনে এডভোকেট আবদুল খালেকের বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগ সহ আরো কিছু অভিযোগ আনা হয়েছে। শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও মহেশখালী উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ জুলকার নাঈম কর্তৃক গত ১৭ নভেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময় ঋন খেলাপীর অভিযোগে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার বিরুদ্ধে মনোনয়নের বৈধতা ফেরত পেতে সালাহ উদ্দিন হেলালী কমল ও মনির আহমদ আপীল কর্তৃপক্ষের কাছে আপীল আবেদন দায়ের করেছেন। ৪ জনের দায়েরকৃত আপীল আবেদন আগামী শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে উভয় পক্ষের শুনানী শেষে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আপীল কর্মকর্তা এস.এম সাহাদাত হোসেন সিবিএন-কে জানিয়েছেন। এজন্য তিনি ইতিমধ্যে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় হতে সংশ্লিষ্ট নথি ও ডকুমেন্টস তলব করেছেন বলে তিনি জানান।

প্রসংগত, শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দাখিলকৃত ১৬ জন প্রার্থীর মধ্যে বাছাইকালে ১৪ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়। আর মেম্বার পদে দাখিলকৃত ৭১ জন প্রার্থীর সকলের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছিলো। চেয়ারম্যান পদে যাদের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছিলো তারা হলেন-(১) দিদারুল ইসলাম (২) নুরুল হক (৩) আবদুল গফুর (৪) মোহাম্মদ নুরুল হুদা (৫) গিয়াস উদ্দিন সিকদার (৬) আবদুল খালেক (৭) ওসমান সরওয়ার (৮) মোহাম্মদ সাঈদুল ইসলাম চৌধুরী (৯) মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম (১০) এ.কে.এম ইলিয়াস (১১) বদর উদ্দিন (১২) মোহাম্মদ আলম (১৩) মোহাম্মদ শাহজাহান ফারুকী ও (১৪) সোহেল রানা।

আগামী ১২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার এ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
আগামী ২৪ নভেম্বর রোববার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারে শেষ দিন ও চুড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ, ২৫ নভেম্বর সোমবার প্রতীক বরাদ্দ এবং ১২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহন করা হবে।

শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ১৯৫১৮ জন ভোটার রয়েছেন। তারমধ্যে, পুরুষ ভোটার ৯৮৫৬ জন, মহিলা ভোটার ৯৬৬২ জন। নির্বাচনে মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ৯ ওয়ার্ডে ৯ টি, ভোট কক্ষ ৪৬ টি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •