মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিকঃ
কক্সবাজার কলাতলীর মূল পয়েন্টে ময়লা আবর্জনার স্তুপ অন্যত্র সরানোর জন্য পর্যটকদের জোর দাবী। সারাবিশ্বে পরিচিত বাংলাদেশের কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত। দেশ বিদেশ থেকে ভ্রমণ পিপাসু পর্যটক প্রতিনিয়ত কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত দেখতে আসে।
সমুদ্র সৈকতের মূল পয়েন্টে প্রবেশের সময় ময়লা আর্বজনার দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে পর্যটকরা।এই সুন্দরময় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত হচ্ছে আল্লাহ প্রদত্ত পৃথিবীর দীর্ঘতম পর্যটন স্পট। ভ্রমণ পিপাসু পর্যটক ও কক্সবাজারের সচেতন মহলের দাবী কলাতলী ডলপিন মোড় থেকে কক্সবাজার শহরে প্রবেশের পাশে সৃষ্ট ময়লা আবর্জনা অন্যত্র সরিয়ে ফেললে পরিবেশ সুন্দর হবে।(১৯ নভেম্বর) মঙ্গলবার বিকালে কলাতলী রোডে একাধিক পর্যটক নাকে হাত দিয়ে চলাচল ও অস্বস্তিকর অবস্থায় দেখা যায়।প্রতিবেদক পর্যটকদের কাছ থেকে আপনাদের কি সমস্যা জানতে চাইলে তারা জানান পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে ভ্রমণ করতে আসার শুরুতে দেখা যায় ময়লা আবর্জনা স্তুপ।এই দুর্গন্ধময় ময়লা আবর্জনা অন্যত্রে সরানো হলে পর্যটকরা নির্বিঘ্নে চলাচল ও দুর্গন্ধময় পরিবেশ থেকে রক্ষা পাবে বলে আশা করেন।পর্যটকরা আরো জানান কলাতলীর মূল পয়েন্টে ময়লা আবর্জনার স্তুুপ অন্যত্র সরানো হলে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পের উন্নতি ও সমুদ্র সৈকতের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে।কলাতলী রোডের ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধময় পরিবেশ থেকে অচিরেই রক্ষা পাবার জন্য পর্যটক ও স্থানীয়রা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •