ইমাম খাইর, সিবিএন:
কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি ও দ্রব্যমূল্যের বাজার অস্থিতিশীল করলে মোবাইলকোর্টসহ কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার।
তিনি বলেন, সরকারকে বিব্রত করতে একটি মহল নানামুখি অপপ্রচারে লিপ্ত। দেশে লবণের কোন সংকট নেই। চাহিদার অতিরিক্ত মজুদ রয়েছে। পেঁয়াজের বাজারও ক্রমান্বয়ে স্থিতিশীল হয়ে আসছে। দুই-একদিনের মধ্যে পুরোপুরি বাজার নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। তবু সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত ও ভীতি সঞ্চার করছে কিছু লোক।
কক্সবাজার জেলায় দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখার বিষয়ে ব্যবসায়ীদের নিয়ে মতবিনিময়কালে এডিসি মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার এসব কথা বলেন।
মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের শহীদ এটিএম জাফর আলম সম্মেলন কক্ষে সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বলেন, অপপ্রচারকারীদের খোঁজে বের করা হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা। যারা দ্রব্যমূল্য নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কঠোর নজরদারিতে রাখা হচ্ছে বলেও জানান এডিসি।
সভায় বক্তব্য রাখেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আমিন আল পারভেজ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএইচএম মাহফুজুর রহমান, বিসিকের মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) ছৈয়দ আহমদ, বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি নুরুল কবির, কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আবু মোর্শেদ চৌধুরী, ইসলামপুর লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি শামসুল আলম আজাদ, সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, জাহেদ সরওয়ার সোহেল, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নাছির উদ্দিন, কক্সবাজার দোকান মালিক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি মোস্তাক আহমদ, চাউল ব্যবসায়ী কাজল বড়ুয়া প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •