চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় মোহাম্মদ ফারুক (৩৩) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে হারবাং ইউনিয়নের ভান্ডারির ডেবা স্টেশন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আটক মোহাম্মদ ফারুক হারবাং ইউনিয়নের ভান্ডারীর ডেবা এলাকার দুদুমিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে হারবাং ইউনিয়নের ভান্ডারীর ডেবা এলাকায় ডেকে নিয়ে হামলা চালানো হয় চকরিয়া-পেকুয়ায় কর্মরত বিজয় টিভির সাংবাদিক জসিম উদ্দীনের উপর। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সাংবাদিক জসীম উদ্দীন বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সাংবাদিক জসিম উদ্দিন হারবাং ইউনিয়নের কোরবানিয়া ঘোনা এলাকার রফিক আহমদের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, চোরাচালানে তথ্য দেয়ার কথা বলে শনিবার রাতে সাংবাদিক জসিম উদ্দিনকে ভান্ডারীর ডেবা এলাকায় ডেকে নিয়ে যায় একই এলাকার দুদুমিয়ার ছেলে মোহাম্মদ ফারুক। সেখানে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা তার দুই সহোদর হারুন ও মামুন এবং মাহবুব নামের একব্যক্তি সাংবাদিক জসিমের উপর হামলা চালায়। দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে পিটিয়ে জখম করে হামলাকারীরা। পরে স্থানীয়রা তার চিৎকারে এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। এসময় তাকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। কিন্তু তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন চিকিৎসক।

গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিক জসিম উদ্দিনের দায়ের করা মামলার অন্যতম আসামি মোহাম্মদ ফারুককে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সোমবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •