আমার ছেলে এ+ পাবে তো!

ফেসবুক বর্ণারঃ
একজন ছাত্র বেশি দুর্বল হওয়ায় ৫ম শ্রেণীতে ভর্তি না দিয়ে পরপর তিনবার ফেরত দেওয়ায় অভিভাবক অনেকটা জোর করে বললেন, ভাই দয়া করে ছেলেটাকে স্কুলে রেখে দেন। পাশ করার দরকার নেই। প্রয়োজনে ৫ম শ্রেণিতে দুই বছর থাকবে।
আমি বললাম, তা কি করে সম্ভব? দুই বছর!!!
তিনি বললেন- ভাই ছেলে যে স্কুলে পড়েছে তা অনেক নামি-দামি ও ব্যয়বহুল। সিস্টেমও খুব ভাল।
আমার কপাল খারাপ। ছেলের দুষ্টুমি, ঝগড়াঝাটি, অসৎ আচরণের কারণে বিশেষ করে খারাপ বন্ধুদের আড্ডায় পড়ে আমাদের (মা-বাবা)কথা শুনে না।
এত ছোট ছেলে মা- বাবার কথা শুনেনা? মানে বুঝলামনা?
আড্ডা বা করার সময় কোথায় তার?
তিনি বললেন, বুঝবেন না স্যার।
ভীষণ কষ্টে আছি। তার পড়ালেখা লাগবেনা। আদবকায়দা শিখিয়ে মানুষ করতে পারলে হবে।
আমি শুনেছি, আপনাদের স্কুলে নিয়মশৃঙ্খলা খুবই ভাল।
আদবকায়দা/নৈতিক শিক্ষার উপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয় শুনে বার বার এসেছি। দয়াকরে ফেরত দিয়েন না। প্রয়োজনে দুই বছর পাশে রেখে ভাল কিছু শেখাতে চেষ্টা করুন। ভাল রেজাল্টের দরকার নেই।
ভর্তি কমিটিকে অনুরোধ করে ছেলেকে ভর্তি করানোর প্রায় ছয়মাস পর ছেলেটির বাবা খুশি হয়ে সবার জন্য নাস্তা নিয়ে অফিসে উপস্থিত।
আমাকে বলেন, স্যার ছেলেটার জীবনে এখন অনেক পরিবর্তন। পাঁচওয়াক্ত নামাজ নিয়মিত আদায় করে। সবাইকে সালাম করে।
সবচেয়ে খুশির খবর হল, আমাদের (মা-বাবা) সাথে খুবই ভাল আচরণ করে। কথা মেনে চলে। হোস্টেল হতে বাড়ি গেলে আগের মত আড্ডা দিতে বাড়ি হতে বের হয়না। ছেলের এই পরিবর্তনে আমি খুবই খুশি।
সেই তিনি (অভিভাবক) পিইসি পরীক্ষার একদিন আগে এসে যদি বলেন, স্যার আমার ছেলে এ+ পাবে তো!!!!
এতদিন পড়িয়ে যদি এ+ না পায় তাহলে…
সম্মানিত পাঠক,
আশ্চর্য হয়েছেন???
আমি কিন্তু আশ্চর্য হইনি।
উনাকে মনে করিয়ে দিইনি যে, ভর্তির সময়ে ওনার আকুতি ও প্রতিশ্রুতির কথা।
শুধু বলেছি, একজন ভাল/আদর্শবান ছাত্রের প্রায় গুণাবলি অতি অল্প বয়সে আপনার ছেলে রপ্ত করবে ভাবতে ও পারিনি। তাছাড়া এ+ পাওয়ার সম্ভাবনা অবশ্যই আছে।
তবে, বারবার ফেল করা, ডানপিটে, পিতার মাতার অবাধ্য ছেলেটা এতটুকু ভাল হয়ে এ/এ- পেলেও মন্দ কি!!!!!!
তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরে বললেন, ভাই মনে কিছু নিবেন না। সরকারি স্কুলে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি করানোর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন। তাই এ+টা জরুরী।
তাছাড়া এ+ অর্জন করতে না পারলে লেখাপড়া করিয়ে লাভ কি? জীবনে কোথাও চান্স পাবেনা।
মান সম্পন্ন শিক্ষার পাশাপাশি ভালমানুষ হওয়া, আলোকিত মানুষ বানানো আমাদের মুল উদ্দেশ্য এবং ছয়মাস আগে আপনার পক্ষ হতে স্বীকৃতিই প্রমাণ করে।
আলহামদুলিল্লাহ এক্ষেত্রে আইডিয়াল সফল।
তবে আল্লাহ আপনার আশা কবুল করুন বলে শেষ বিদায় দিলাম।
স্কুল/মাদ্রাসার সকল পরীক্ষার্থীর প্রতি আইডিয়াল শিক্ষা পরিবারের পক্ষ হতে শুভ কামনা।

(মিজানুর রহমান, অধ্যক্ষ, আইডিয়াল স্কুল, বাংলাবাজার, ঝিলংজা, সদর,  কক্সবাজার  এর ফেসবুক ওয়াল থেকে)

সর্বশেষ সংবাদ

পেকুয়ায় পরিক্ষার্থীদের বিদায় ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের ভবন উদ্বোধন

সনাতনী সেবক সংঘের সভাপতি অধ্যক্ষ অজিত , সম্পাদক সুধীর , সাংগঠনিক বলরাম

চুনতি সূফিনগর যুব ঐক্য পরিষদের ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন

অধ্যাপক হুমায়ুন কবিরের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন

ফুলছড়িতে দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় শিশু আহত

মাস্টার আ.ন.ম রফিকুর রশীদের পিতার ইন্তেকাল, রবিবার বাদে জোহর জানাযা

কেজি স্কুলের নৈরাজ্য-৬ : এনসিটিবি বহির্ভূত বইয়ের পর এবার গাইড বাণিজ্য

কক্সবাজারে এশিয়ান টিভির ৭ম বর্ষপূর্তি উদযাপন

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রধানমন্ত্রীর প্রয়াত সামরিক সচিবের স্মরণ সভা উপলক্ষে লোহাগাড়ায় প্রস্তুতি সভা

এসপিসহ পুলিশ কর্মকর্তাদের নাগরিক সংবর্ধনা কাল

এসএসসি পরীক্ষার সূচিতে পরিবর্তন

পল্লীকবি জসিম উদ্দিনের সাহিতকর্ম নিয়ে রামু লেখক ফোরামের সাহিত্য আসর

শহরে বাসায় ঢুকে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

রাজনীতিতে বাধা-বিপত্তি আসবে, ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা করতে হবে -এড. শামীম আরা স্বপ্না

যশোরের নাভারন রেলষ্টেশন থেকে ২টি স্বর্ণের বার উদ্ধার

অভিযানের মাঠে এমপি জাফর, অবৈধ কাউন্টার সীলগালা

হোয়ানক আব্দুল মাবুদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

রাক্ষুসে পিরানহা ‘সুস্বাদু চাঁন্দা’ মাছ বলে বিক্রি!

লিবিয়ার পরিস্থিতি এতো জটিল হলো কিভাবে?