এম.এ আজিজ রাসেল :

দ্বিতীয় দিনেই জমে উঠেছে কক্সবাজারের আয়কর মেলা। শনিবার ছুটির দিনে মেলায় আয়কর দিতে আসা লোকজনের সরব উপস্থিতিতে সৃষ্টি হয় উৎসবের আমেজ। লোকজন স্বতঃস্ফূর্তভাবে আয়কর দিতে ছুটে আসছে। সকালের দিকে ভিড় কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে এ সংখ্যা। মেলায় ই-টিন সার্টিফিকেট প্রদান, আয়কর রিটার্ন পুরণে সহায়তা প্রদান, আয়কর রিটার্ন গ্রহণসহ আয়কর বিষয়ে অন্যান্য সেবাসমুহ দেয়া হচ্ছে। সহজেই সেবা পাওয়ায় খুশি করদাতারাও।

মেলার প্রথমদিন শুক্রবার ১৭ লাখ ৯২ হাজার ৫৬১ টাকা আয়কর আদায় হলেও শনিবার আদায় হয়েছে ৩৭ লাখ ৭ হাজার ৬৫৫ টাকা। এ নিয়ে গত দুই দিনে আয়কর আদায় হয়েছে মোট ৫৫ লাখ ২১৬ টাকা। মেলার দ্বিতীয় দিনে মোট রিটার্ন দাখিল করেছেন ৯৪২ জন করদাতা। নতুনভাবে ৫৭ জন করদাতার কাছ থেকে আদায় হয়েছে ১ লাখ ৯১ হাজার টাকা। সেবা গ্রহণ করেছেন মোট ২ হাজার ৪৯৭ জন।

আয়কর রিটার্ন জমা দিতে আসা মংছেন ওয়ান বাবু বলেন, কোনো প্রকার ঝামেলা ছাড়াই রিটার্ন জমা দেওয়া যাচ্ছে। সহায়তা কেন্দ্র থেকে সব ধরনের প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাচ্ছে। সব মিলে বলা যায় এবারের আয়কর মেলা অন্যবারের চেয়ে ভালো এবং মনোরম।

কর অঞ্চল-৪ এর কক্সবাজার আঞ্চলিক কার্যালয়ের সহকারি কর কমিশনার নিপুন চন্দ্র দে জানান, দিন যত গড়াচ্ছে, মেলায় কর দিতে আসা লোকজনের উপস্থিতিও বাড়ছে। আগামী ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত আয়কর মেলার কার্যক্রম চলবে।

‘সকলে মিলে দিব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’Ñএ প্রতিপাদ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে উদ্যোগে কক্সবাজার আয়কর কার্যালয়ের আয়োজনে চার দিনব্যাপী ‘আয়কর মেলা-২০১৯’ শুরু হয়। গত শুক্রবার সকালে বিয়াম ফাউন্ডেশনের আঞ্চলিক কেন্দ্রের ‘ইনানী মাল্টি-পারপাস সম্মেলন কক্ষে’ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •