সংবাদদাতা:
কক্সবাজারের ঈদগাহ দঃ মেহেরঘোনায় কাশেম নামক এক প্রতারককে হাতেনাতে ধরে ধরেছে স্থানীয়রা। তবে পরে মুচলেকায় ছেড়ে দেয়া হয়।
আজ শনিবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে ঈদগাহ দক্ষিণ মেহেরঘোনা নুর-এ কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে যায়, কাশেম ঈদগাহ দক্ষিণ ঘোনা মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন মেয়েদের বিয়ে করার আশ্বাসে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তাছাড়াও ভিসা বিক্রি ও পুলিশের সোর্স পরিচয়ে বিভিন্ন লোকজনকে মামলায় ঢুকিয়ে দেবে বলেও লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তার সুত্র ধরে স্থানীয় হামিদুল হক শাকিলের কাছ থেকে মামলায় ঢুকিয়ে দেবে বলে কিছুদিন আগে ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। আবার আজকেও একই অজুহাতে ৩০ হাজার টাকা খুঁজলে শাকিল বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানায়। তখন সে টাকার জন্যে আসলে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মাহবুব আলম মাবুসহ স্থানীয় লোকজন মিলে তাকে আটক করে পূর্বের দেওয়া ৩০ হাজার টাকা ফিরিয়ে নেয়। এ ঘটনা শুনে আরো বিভিন্ন পাওনাদার আসতে থাকে। পরে সবার সম্মুখে আগামী সোমবার তারিখ নির্ধারণ করে মুচলেখায় ছেড়ে দেয়।

এসময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন ঈদগাহ ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক কায়ুম উদ্দিন ডিসেন্ট, সদর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামিল উদ্দিন শাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দু রহিমসহ অনেকে।

এদিকে তাকে আটকের খবর শুণে ভুক্তভোগীদের মাঝে খুশির আমেজ লক্ষ্য করা যায়। তাছাড়াও পুলিশের সোর্স দাবি করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পুলিশ বাহিনির সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে জানান সচেতন মহল। তার এহেন কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •