বলরাম দাশ অনুপম, কক্সবাজার :

হাজারো ভক্ত ও দর্শনাথীদের ভীড়ে জমে উঠেছে ঐতিহ্যবাহি রাস মহোৎসব ও মেলা। প্রতিদিনই রাস মেলা ও মহোৎসবকে কেন্দ্র করে কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল পালপাড়াস্থ শ্রীশ্রী রাস মন্দির প্রাঙ্গনে ভীড় করছে ভক্তরা। ৫ দিন ব্যাপী রাসমেলা শেষ হবে বৃহস্পতিবার সকালে। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস মেলা উপলক্ষে খুরুশকুলে চলছে উৎসবের আমেজ। জমজমাট উৎসব এলাকার সড়ক-উপসড়ক। রাস মেলাস্থলে বসেছে বাহারী পণ্যের স্টল, নাগরদোলা, মৌসুমী ব্যবসায়ীদের দোকানপাট। উৎসবের ভিতরে চলছে ধর্মীয় সংকীর্তন, প্রতিমা প্রদর্শনী, রাস পূর্ণিমার পূজা। এতে আগমন ঘটেছে হাজার হাজার নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর, দেশি-বিদেশী পর্যটক, দর্শণার্থী ও ভক্তবৃন্দ। খুরুশকুল সার্বজনীন শ্রীশ্রী রাস মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট নেপাল পাল জানান, গত ১০ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে রাসমেলা। মঙ্গলবার হাজার হাজার ভক্তের সমাগম ঘটেছে রাস মেলায়। বুধবারও প্রচুর ভক্তের সমাগম ঘটবে। বৃহস্পতিবার সমাপ্ত হবে রাসমেলা। পর্যটন নগরী কক্সবাজার সকল সম্প্রদায়কে ধর্মীয় চেতনায় মেলা প্রদর্শন করার অনুরোধ জানাচ্ছি। কক্সবাজার জেলা হিন্দু মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক শিপন পাল জানান, রাস মেলা সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের উৎসব হলেও এখানে অসাম্প্রদায়িক চেতনার উন্মেষ ঘটে। ওই এলাকার হিন্দু-মুসলিম, বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মিলনমেলা ঘটে ৫দিনব্যাপী। এখানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের লোকজন ছাড়াও সমাগম ঘটে ভারত, নেপালের ভক্তদেরও। পর্যটন নগরীর পাশ্ববর্তী এলাকায় উৎসব অঙ্গন হওয়ায় পর্যটকেরও কমতি নেই। কেই আসে ঐতিহ্যবাহী রাস দেখতে, কেউ আসে লীলা প্রদর্শনী দেখতে, কারও অবস্থান ঘটে প্রতিমা প্রদর্শন করতে। আর সনাতনী ধর্মাবলম্বীরা আসে ভক্তি ভরে রাসপূজা করতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •