মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সেন্টমার্টিন থেকে আটকাপড়া পর্যটক আনার জন্য ৩ টি জাহাজ পৌঁছার আগেই ৩ টি কাঠের বোট ও ৪টি স্পীড বোটে করে প্রায় দেড়শ’ পর্যটক নিজেদের উদ্যোগে ঝুঁকি নিয়ে টেকনাফ চলে এসেছে। সোমবার ১১ নভেম্বর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তারা টেকনাফে পৌঁছান। এর মধ্যে কিছু স্থানীয় বাসিন্দাও রয়েছেন। এর আগে সকালে পর্যটকদের আনতে টেকনাফ দমদমিয়া জেটিঘাট থেকে ৩ টি জাহাজ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেয়। জাহাজ তিনটি সোমবার সাড়ে ১২ টার দিকে সেন্টমার্টিন দ্বীপে পৌঁছায়।

এ বিষয়ে সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর আহমদ সিবিএন-কে বলেন, ৪টি স্পিডবোট ও ৩টি কাঠের ট্রলারে কিছু লোকজন টেকনাফ ও শাহপরীর দ্বীপে পৌঁছেছেন। দুপুরে দ্বীপে আটকা পড়া পর্যটকদের নিতে আসতে জাহাজ ৩ টিও নিরাপদে পৌঁছেছে। তাদের ভালোমতো জাহাজে তুলে দেওয়া হবে। তাদের যাতে অসুবিধা না হয়, সেদিকে সর্বোচ্চ নজর রাখা হচ্ছে।
টেকনাফের নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, পর্যটকদের ফিরিয়ে আনতে জাহাজ দ্বীপে পৌঁছেছে। বিকাল সাড়ে ৫ টার মধ্যে তাদের নিয়ে টেকনাফে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। তবে কিছু লোকজন স্পিডবোট ও ট্রলারে করে টেকনাফে এসেছেন বলে খবর পেয়েছি। জাহাজ পাঠানোর পরও কেন ট্রলারে করে লোকজন আসছে সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে সিবিএন-কে ইউএনও জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •