মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বিশ্বের দীর্ঘতম বালুকাময় সমুদ্র সৈকত হচ্ছে কক্সবাজার। এই সমুদ্র সৈকতের আকর্ষনে প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ দেশী-বিদেশী পর্যটক ও দর্শনার্থী কক্সবাজারে আসেন। এই পর্যটন খাত শুধু কক্সবাজার জেলার জন্য নয়, দেশেরও একটি বিশাল সম্পদ ও গর্বের বিষয়। কক্সবাজারের পর্যটন শিল্প জাতীয় বাজেটে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব যোগান দিয়ে থাকে। এ পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে আরো আকর্ষনীয় ও শ্রীবৃদ্ধি করা আবশ্যক। তাই পর্যটন এলাকাকে সবসময় পরিচ্ছন্ন ও স্বাস্থ্যকর রাখতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন, কক্সবাজার পৌরসভা সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও সংস্থা গুলো নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

কক্সবাজার পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ড হোটেল মোটেল জোন এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখতে এইড-বাংলাদেশ ও সুপার ক্লিন বিডি লিঃ এবং পরিবেশ সংরক্ষণ ও পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করন কমিটি কক্সবাজার এর যৌথ চুক্তিতে বর্জ্য ব্যাবস্থাপনা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন একথা বলেন। জেলা প্রশাসক বলেন, বাংলাদেশ এইড, সুপার ক্লিন বিডি লিঃ নামক বেসরকারি সংস্থার সাথে চুক্তি করে আপাতত কক্সবাজার পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ড পরিচ্ছন্নতার আওতায় আনা হয়েছে। পরবর্তীতে পুরো কক্সবাজার শহর এ পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচীর আওতায় আনা হবে উল্লেখ করে ডিসি মোঃ কামাল হোসেন বলেন-এ পরিচ্ছন্নতা কাজ কক্সবাজার জেলা প্রশাসন নিয়মিত তদারকি করবে। উদ্বোধকের বক্তৃতায় কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান পর্যটন ও হোটেল মোটেল জোন এলাকার সমস্ত সাইনবোর্ড, ডিসপ্লে বোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন ও অন্যান্য বিজ্ঞাপন বোর্ড শহরের সৌন্দর্য বর্ধনের প্রয়োজনে দ্রুত সরানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে উল্লেখ করেন। এজন্য পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের তাঁর নিজের নামে দেওয়া ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার গুলো সবার আগে সরিয়ে ফেলার জন্য পৌর পরিচ্ছন্নতা বিভাগের কর্মকর্তা- কর্মকর্মচারীদের তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান তাঁর বক্তৃতায় এ রকম কল্যাণমূখী নির্দেশ দেওয়ায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলে তাঁকে করতালি দিয়ে সাধুবাদ জানায়।

রোববার ১০ নভেম্বর কক্সবাজার পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজি মোরশেদ আহমদ বাবু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ আল আমিন পারভেজ কক্সবাজার পৌরসভার ১০, ১১,১২ ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর নাসিমা আক্তার বকুল, গেস্ট হাউজ ও কটেজ মালিক সমিতির নেতা আবুল কাসেম সিকদার, নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, শরাফত উল্লাহ বাবুল, কামরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য পরিচ্ছন্নতা র‍্যালী ঢোল, তবলা, বাঁশী, গান বাজিয়ে হোটেল মোটেল জোন এলাকা পরিদর্শন করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •