মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ প্রভাব পুরো কক্সবাজারে আর নেই। এখানকার উপকূলীয় এলাকা ‘বুলবুল’ থেকে সম্পূর্ণ আশংকা মুক্ত হয়ে গেছে। ৪ নম্বর হুশিয়ারী সংকেত নামিয়ে কক্সবাজার সহ সারা বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। রোববার ১০ নভেম্বর সন্ধ্যার মধ্যে আবহাওয়া সংকেত নামিয়ে ফেলা হতে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে সর্বশেষ রোববার ১০ নভেম্বর দুপুর ১২ টায় প্রচারিত ঘূর্ণিঝড় বুলবুল বিষয়ক আবহাওয়ার ৩১ নম্বর বুলেটিন পর্যালোচনা করে কক্সবাজার আবহাওয়া অফিসের প্রধান ও সহকারী আবহাওয়াবিদ মোঃ আবদুর রহমান সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

‘বুলবুল’ নামক স্ট্রম সাইক্লোনটি সুন্দরবন বনাঞ্চলে বাঁধা পেয়ে সেটি শনিবার রাত হতে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে গভীর নিন্মচাপে পরিণত হয়েছে। গভীর নিন্মচাপ হতে সেটি সহসায় লঘু নিন্মচাপে পরিণত হয়ে রোববার সন্ধ্যা নাগাদ সেটি সম্পূর্ণ মিলিয়ে যাবে বলে ধারণা করছেন সহকারী আবহাওয়াবিদ মোঃ আবদুর রহমান। তিনি সিবিএন-কে আরো বলেন, দূর্বল হওয়া নিন্মচাপের প্রভাবে এবং মুন পেইজ অর্থাৎ আাসন্ন পূর্ণিমার ভরাকাঠালের কারণে আগামী ২ দিন কক্সবাজার সহ দেশের সমগ্র উপকূলীয় এলাকায় সামুদ্রিক জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চাইতে ২ ফুট থেকে ৩ ফুট পর্যন্ত উচ্চতা বৃদ্ধি পেতে পারে। একইসাথে আগামী ২ দিন কক্সবাজার ও দেশের উপকূলীয় এলাকায় হালকা ঝড়ো হাওয়া সহ বৃষ্টি হতে পারে। কক্সবাজার আবহাওয়া অফিসের প্রধান মোঃ আবদুর রহমান সিবিএন-কে বলেন, সাইক্লোন শেল্টার ও নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেওয়া উপকূলীয় এলাকার লোকজন নিজ নিজ বাড়িঘরে ফিরে যেতে পারবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •