নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ বলেছেন, সব কাজে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। অর্থ ও পদের প্রতি লোভ থাকা যাবেনা। দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ব্যক্তি সর্বোচ্চ আমানতদার না হলে কোন সংগঠন বা সমিতিকে সামনে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়।
শনিবার (২ নভেম্বর) সকালে কক্সবাজার পৌরসভায় অবস্থানরত বৃহত্তর ঈদগাঁও সমিতির সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কউক চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।
শহরের রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ডে অনুষ্ঠিত সভায় কর্নেল ফোরকান আহমদ বলেন, সবাইকে যার যার অবস্থানে স্বচ্ছ হতে হবে। কোন অনিয়ম করা যাবেনা। রাজনৈতিক মতপার্থক্য, বিবেদ-বিভাজন না করে সম্মিলিতভাবে এগুতে হবে।
সমিতির সভাপতি প্রফেসর জাফর আহমদের সভাপতিত্বে সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখেন- সমিতির সদস্য ডা. সাইফুদ্দিন ফরাজি।
তিনি বলেন, আমাদের সমিতি কোন রাজনৈতিক দলের নয়। সব দলের লোক এখানে থাকবে। আমরা সবাই একঘরের সন্তানের মতো। সম্মিলিতভাবে আমরা এগিয়ে যেতে চাই।
অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ও সরওয়ার রোমনের যৌথ সঞ্চালনায় সাধারণ সভায়
বক্তব্য রাখেন- সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান চৌধুরী, এডভোকেট মুহাম্মদ আখতার উদ্দিন হেলালি, এডভোকেট একরামুল হুদা, সাংবাদিক ইমাম খাইর। শুরুতে কুরআন তেলাওয়াত করেন নুরুল আজিম।
সাধারণ সভায় সমিতির সম্পূরক বাজেট (২০২০-২০২১ অর্থবছর) উপস্থাপন করেন কোষাধ্যক্ষ কায়সার ইদ্রিচ।
২০২০ সালের কর্মপরিকল্পনা পেশ করেন সহসভাপতি মো. তৈয়ব।
স্বাগত বক্তব্য শেষে গঠনতন্ত্রের কিছু ধারা-উপধারার সংশোধন ও সংযোজন প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আবুল কালাম।
আয়-ব্যয় ও অডিট রিপোর্ট পেশ করেন সদস্য বেলাল আহমদ।
সাধারণ সভার সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন নুরুল আজিম ফরাজি। উপস্থিত ছিলেন, –ছৈয়দ নুর ফরাজি, এডভোকেট সরওয়ার কামাল, নুরুল আবছার সিকদার, মনজুর আলম, কামরুল হাসান, আবুল কালাম আজাদ, জসিম উদ্দিন প্রমুখ। সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপনী বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি প্রফেসর জাফর আহমদ।
তিনি বলেন, পারস্পরিক সৌহার্দ্য সম্প্রীতি বৃদ্ধি, সামাজিক উন্নয়ন ও আর্থিক সমৃদ্ধির জন্য গঠিত বৃহত্তর ঈদগাঁওবাসীর প্ল্যাটফর্মটি জেলার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে। একজন্য আমাদের আরো ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •