নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার সদর শাখার আওয়াতধীন খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আসন্ন ২১ নভেম্বর সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতে বিবাহিত, মাদকাসক্ত ও বিএনপি-জামায়াত পরিবারের সন্তানদের অবিলম্বে বাতিল করে ত্যাগী ছাত্রলীগ কর্মীদের কমিটিতে স্থান দেয়ার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রিপোর্টার্স ইউনিটি কক্সবাজারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সদর ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী তামজিদ পাশা ও খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আসন্ন ২১ নভেম্বর সম্মেলন বয়কটের ঘোষণা দেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, গত ৩০ অক্টোবর খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগৈর সম্মেলন প্রস্তুতিমূলক আহŸায়ক কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত কমিটিতে প্রকৃত কর্র্মীদেরকে প্রাধান্য না দিয়ে ছাত্রলীগে সদ্য যোগ দেওয়া বিএনপি জামায়াত-সমর্থক পরিবারের সন্তান, বিবাহিত, মাদকাসক্তসহ ফৌজদারী মামলার আসামীদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। ওই কমিটির সদস্য আইয়ুব আলী খান বিবাহিত। শহিদুল ইসলাম একজন টমটম ডাকাতি মামলার এজাহারভুক্ত আসামী। সাইফুল ইসলাম কালু, আদিল সজিব, নুর মোহাম্মদ সদ্য যোগ দেওয়া ও বিএনপি পরিবারের সন্তান। কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী তামজিদ পাশা বিএনপি, জামায়াত সমর্থিত পরিবারের সন্তান। তারা বাবা মোঃ শফি ১৯৯৬-১৯৯৭ সালে খুরুশকুল ১ নাম্বার ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সেই কমিটির সভাপতি ছিলেন মাস্টার ওবাইদ উল্লাহ। তাই জামায়াত-বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্য খুরুশকুল ইউনিয়রন ছাত্রলীগের সম্মেলন প্রস্তুতিমূলক আহŸায়ক কমিটিতে জামায়াত-বিএনপির পরিবারের সন্তানদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে দাবি জানানো হয়, খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কর্মীদের সুযোগ দিয়ে পূণরায় আহŸায়ক কমিটি গঠন করার। নতুবা টাকার বিনিময়ে কমিটি দেওয়া সদর ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী তামজিদ পাশাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হবে। পাশাপাশি তৃণমূল ছাত্রলীগের কর্মীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচীর হুশিয়ারী দেয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খুরুশকুল ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক রমজান উদ্দিন (জুয়েল), খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ মোরশেদ, খুরুশকুল ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সহ-সভাপতি কলিম উল্লাহ, খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মঈন উদ্দিন মুরাদ, খুরুশকুল ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সাদেকুল ইসলাম, খুরুশকুল ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল আলম হৃদয়, খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য আরাফাত উদ্দিন, মোঃ ফরিদ, খরুশকুল ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতা রিয়াদ মোঃ রানা, খুরুশকুল উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, খুরুশকুল ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ নোবেল, খুরুশকুল ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মুজিবসহ অসংখ্য তৃণমূলের ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •