আলমগীর মানিক, রাঙামাটি:

“দক্ষ যুব গড়ছে দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ “এই প্রতিপাদ্যে সারাদেশের ন্যায় পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতেও জাতীয় যুব দিবস দিবস পালিত হয়েছে। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে শুক্রবার সকালে জেলা পরিষদের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য র‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে শিল্পকলা একাডেমীতে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এস এম শফি কামালের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) জাহাঙ্গীর আলম, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শহীদুল ইসলাম, প্যানেল মেয়র জামাল উদ্দিন,কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক প্রবন কুমার চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা বলেছেন, দেশের জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশ যুব সমাজের কল্যাণে বাস্তবমুখী কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের অঙ্গীকার রয়েছে।

তাই যুব সমাজের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিতকল্পে বেকার যুবদের উদ্বুদ্ধকরণ, প্রশিক্ষণ প্রদান ও প্রশিক্ষণোত্তর আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে স্বাবলম্বী করে তোলা, যুব ঋণ প্রদান, দারিদ্র্য বিমোচন ইত্যাদি কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সে লক্ষ্যে অধিদপ্তরের কার্যক্রম তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত বিস্তৃত করতে দেশে এবং বিদেশে যুবদের অধিকহারে কর্মসংস্থান ও আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে বর্তমান যুববান্ধব সরকার বদ্ধপরিকর।

পাহাড়ের শিক্ষিত বেকার যুবদের জন্য রাঙামাটি যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে বেশ কয়েকটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে মন্তব্য করে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, এই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে যেকোনো যুব তার বেকারত্ব গুছাতে পারবে।

আলোচনা সভা শেষে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করে কোর্স সম্পন্নকারী প্রশিক্ষনার্র্থীর মাঝে সনদ বিতরন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •