মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

এদেশের সর্বোচ্চ আমলাতান্ত্রিক পদের নাম মন্ত্রীপরিষদ সচিব (কেবিনেট সচিব)। এ পদে আসীন কর্মকর্তাই দেশের প্রজাতন্ত্রের সর্কল কর্মকর্তা-কর্মচারীর প্রধান অভিভাবক হিসাবে গন্য হয়। জাতীয় বেতন স্কেলে কেবিনেট সেক্রেটারির জন্য সর্বোচ্চ ও সম্পূর্ণ আলাদা একটি বেতন স্কেল রয়েছে।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে ২৮ অক্টোবর সোমবার পর্যন্ত ২২ জন কর্মকর্তা কেবিনেট সেক্রেটারি হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন। তাঁদের মধ্যে দেশের প্রথম কেবিনেট সেক্রেটারি হলেন এইচ.টি ইমাম। তিনি ১৯৭১ সালের ১৬ জুলাই থেকে ১৯৭৫ সালের ২৭ আগস্ট পর্যন্ত এ পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এইচ.টি ইমাম বিগত প্রায় ১১ বছর ধরে সরকারের উপদেষ্টা হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। এরপর (২) শফিউল আজম, ১৯৭৫ সালের ২৮ আগষ্ট থেকে ১৯৭৬ সালের ১৪ জুলাই পর্যন্ত। তাঁর বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায়। (৩) আব্দুল মোমেন খাঁন, ১৯৭৬ সালের ১৪ জুলাই থেকে ১৯৭৭ সালের ১৭ জুলাই পর্যন্ত। (৪) এম.কেরামত আলী, ১৯৭৭ সালের ১৫ জুলাই থেকে ১৯৮২ সালের ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত। তিনি হচ্ছেন-এ পর্যন্ত দায়িত্ব পালনকৃত কেবিনেট সেক্রেটারিদের মধ্যে সর্বোচ্চ মেয়াদে একটানা ৪ বছর ৯ মাস দায়িত্ব পালন করছেন। (৫) মোঃ মহবুবুজ্জামান, ১৯৮২ সালের ১৪ এপ্রিল থেকে ১৯৮৬ সালের ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। (৬) মোঃ মুজিবুল হক, ১৯৮৬ সালের ২৩ নভেম্বর থেকে ১৯৮৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। (৭) এম.কে আনোয়ার, ১৯৯০ সালের ১ জানুয়ারী থেকে ১৯৯১ সালের ১০ জানুয়ারী পর্যন্ত। (৮) মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান, ১৯৯১ সালের ২০ জানুয়ারী থেকে ১৯৯২ সালের ৪ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত। মোহাম্মদ আয়ুবুর রহমান ১৯৯২ সালের ৪ ফেব্রুয়ারী থেকে ১৯৯৬ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তিনি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মেয়াদে এপদে দায়িত্ব পালন করছেন। (১০) সৈয়দ আহমেদ, ১৯৯৬ সালের ১ অক্টোবর থেকে ১৯৯৭ সালের ১৮ জানুয়ারী পর্যন্ত। (১১) আতাউল হক, ১৯৯৭ সালের ১৮ জানুয়ারী থেকে ১৯৯৮ সালের ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত। (১২) কাজী সামশুল আলম, ১৯৯৮ সালের ১৩ জানুয়ারী থেকে ২০০১ সালের ৩০ জুনের পর্যন্ত। (১৩) ড. আকবর আলি খান, ২০০১ সালের ৩০ জুন থেকে ২০০২ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত। (১৪) ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, ২০০২ সালের ২ এপ্রিল থেকে ২০০২ সালের ৬ মে পর্যন্ত। (১৫) ড. সা’দত হোসাইন, ২০০২ সালের ৬ মে থেকে ২০০৫ সালের ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত। (১৬) এ.এস.এম আবদুল হালিম, ২০০৫ সালের ২৭ নভেম্বর থেকে ২০০৬ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। (১৭) মোঃ আবু সোলাইমান চৌধুরী, ২০০৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২০০৬ সালের ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত। তিনি চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার বাসিন্দা (১৮) আলী ইমাম মজুমদার, ২০০৬ সালের ৬ ডিসেম্বর থেকে ২০০৮ সালের ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত। তিনি কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক ছিলেন। (১৯) এম. আবদুল আজিজ এনডিসি, ২০০৮ সালের ২৭ নভেম্বর হতে ২০১১ সালের ২ অক্টোবর পর্যন্ত। (২০) মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসেন ভূইঞা, ২০১১ সসলের ৩ অক্টোবর থেকে ২০১৫ সালের ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত। তিনি কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক ছিলেন। (২১) মোহাম্মদ শফিউল আলম, ২০১৫ সালের ২৯ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত। তিনি কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের রুমখা পালং গ্রামের বাসিন্দা। (২২) খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, ২০১৯ সালের ২৮ অক্টোবর থেকে শুরু। তিনি সোমবার ২৮ অক্টোবর মোহাম্মদ শফিউল আলমের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। তাঁর বাড়ি টাঙ্গাইল জেলায়। তাঁর স্ত্রী কামরুন নাহার মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •