হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
কক্সবাজারের রামু থানার নিয়ন্ত্রণাধীন গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে রামুর পূর্বাঞ্চলের শীর্ষ ডাকাত হেলাল উদ্দিন (৩৩) ও শীর্ষ চোর নুরুল আবছার বাবুলকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি পুলিশ সদস্যরা গর্জনিয়া বাজারের একটি দোকান থেকে চুরি হওয়া তিনটি মুঠোফোন ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে উদ্ধার করেছে।

গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) দেবব্রত রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন- ডাকাত হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে ডাকাতি, অস্ত্র ও মাদকের পাঁচটি মামলা রয়েছে। তার বাবার নাম মৃত হাফেজ আহমদ। চুর বাবুলের বিরুদ্ধে অতিতে তিনটি চুরির মামলা ছিল। শনিবার রাতে বাবুলের কাছ থেকে নতুন করে তিনটি চোরাই মু্ঠোফোন উদ্ধার করা হয়েছে। বাবুলের বাবার নাম আবুল কালাম। হেলাল ও বাবুলের বাড়ি কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের নতুন তিতারপাড়ায়। তাদের দুজনকে রোববার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্র জানায়- গত একসপ্তাহে গর্জনিয়া ও কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গহীন এলাকার পাশাপাশি রাতের আঁধারে নদী পেরিয়ে অন্তত নয়জন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে গর্জনিয়ার মাঝিরকাটার আলোচিত ডাকাত আলম ওরফে লম্বা আলমও রয়েছে।

কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান (ইউপি) আবু ইসমাইল মো. নোমান বলেন- এসআই দেবব্রত রায় গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ হওয়ার পর থেকে ক্রমশ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থির উন্নতি হচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকা জরুরি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •