মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার বীচের সুগন্ধা পয়েন্টে হোটেল ওশান প্যারাডাইসের পশ্চিমে থাকা ভ্যান গাড়ীর মাধ্যমে বিক্রি করা খাবার দোকান বন্ধকারী বীচকর্মী মোহাম্মদ ইসমাইলকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পর্যটন সেলের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে দিয়ে গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি।

বিষয়টি কক্সবাজারের  জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, তদন্ত কর্মকর্তাকে দ্রুততম সময়ে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।  জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন সিবিএন-কে বলেন, উক্ত বীচ কর্মী নিজের একক সিদ্ধান্তে দোকান বন্ধ করে দেওয়ার মতো কাজ করতে পারেন না। এটা পর্যটন সেলের দায়িত্বশীল কর্মকর্তার বিষয়। উক্ত বীচকর্মী দোকান বন্ধ করে দিয়ে অমানবিক কাজ করেছে।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার শহরের উত্তর কলাতলীর মৃত নুর আহমদের পুত্র আকতার হোসেন (৬১) দীর্ঘ প্রায় ২০ বছর ধরে বীচে একটি ভ্যান গাড়ী নিয়ে খাবার বিক্রি করে আসছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসন আকতার হোসেনকে ভ্যান গাড়িতে করে খাবার বিক্রেতা হিসাবে বৈধতা দিয়ে পর্যটন শাখা থেকে একটি পরিচয় পত্রও তাকে দেওয়া হয়। যার নম্বর-১৫১৩। আকতার হোসেনের অভিযোগ, বীচ কর্মীদের নিয়মিত অনৈতিক পাওনা মেটাতে না পারায় গত ১৯ অক্টোবর থেকে বীচ কর্মী মোহাম্মদ ইসমাইল আকতার হোসেনের গাড়ী করে বিক্রি করা বীচের ভ্যান গাড়ীটির দরজা খুলতে দেয়নি। বরং আকতার হোসেনের গাড়ি হতে গ্যাসের সিলিন্ডারটি উক্ত বীচ কর্মী মোহাম্মদ ইসমাইল জোর করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে ৫ কন্যা সন্তানের জনক আকতার হোসেন তার জীবন জীবিকা’র একমাত্র অবলম্বন চালু রাখতে নাপেরে অসহায় হয়ে পড়ে। ষাটোর্ধ আকতার হোসেনের করুণ অসহায়ত্ব দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ বিষয়ে নিন্দার ঝড় উঠে। জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন বিষয়টি শুক্রবার ২৫ অক্টোবর বিকেলে জানতে পেরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ আল আমিন পারভেজকে একইদিন বিকেলে তাৎক্ষণিক বীচে পাঠান এবং তিনি সেখানে গিয়ে ঘটনার বিষয়ে প্রাথমিক সত্যতা পান। তখন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন আকতার হোসেনের ভ্যান গাড়ির দোকানটির দরজা দ্রুত খুলে দিতে নির্দেশ দেন। দীর্ঘ এক সপ্তাহ পর অসহায় আকতার হোসেন ভ্যান গাড়িতে থাকা খাবার দোকানটি পরে খুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও বীচকর্মী মোহাম্মদ ইসমাইলকে চাকুরী থেকে বরখাস্ত করে এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে দেন।

বয়োবৃদ্ধ আকতার হোসেন তার বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন গত শুক্রবার ফিরে পেয়ে সে যেন আকাশের চাঁদ হাতে পেয়েছে। ভ্যান গাড়ি করে খাবার বিক্রেতা আকতার হোসেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের বদন্যতায় তাঁর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •