শাহীন মাহমুদ রাসেল:
কক্সবাজারের রামু উপজেলার তেচ্ছিপুলে শ্মশানের উপর মাদক সেবন, মাদক বেচাকেনায় বাধা দেয়ায় মাদক ব্যবসায়ীরা জ্যোতি ধর নামের এক ক্যান্সার রোগীসহ ৪ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকাল ১১ টার দিকে ফঁতেখারকুল ইউনিয়নের তেচ্ছিপুলের ফারিকুল গ্রামে ওই ৪ জনকে কুপিয়ে আহত করে তারা।
আহত শচীন ধর জানান, তেচ্ছিপুল এলাকার মৃত মোহাম্মদ হোসেন মুন্সির ছেলে বেলাল হোসেন ও একই এলাকার মোজাফফর আহম্মদের ছেলে আবু ছৈয়দ ফারিকুলের হিন্দুপাড়া গ্রামের শ্মশানের উপর দীর্ঘদিন মাদক বিক্রি ও সেবন করে আসছে। এ নিয়ে আহত শচীন ধর বেলালকে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেয়। এবিষয়ে মাদক ব্যবসায়ী বেলাল ও শচীনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।
এ বিরোধের জের ধরে শনিবার সকালে শচীন ধর তেচ্ছিপুল এলাকায় গেলে বেলালের নেতৃত্বে আবু ছৈয়দসহ ১০-১২জনের একটি দল দা, বটি, লোহার রড নিয়ে শচীন ধরের ওপর হামলা চালায়। তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে তার মা জ্যোতি ধর, সুমন ধর ও রুবেল ধর নামের ৩ জনকেও কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা চালায় তারা।
পরে তাদের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে মুমূর্ষু অবস্থায় তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  তাদের মধ্যে ক্যান্সার রোগী জ্যোতি ধরের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছে।
এদিকে এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরে বেলাল ও আবু ছৈয়দ এলাকায় মাদক ব্যবসা করে এলাকার উঠতি বয়সের ছেলেদের হাতে মাদক তুলে দিয়ে নষ্ট করে ফেলছে। এছাড়াও তারা এলাকার মাদকসেবীদের নিয়ে একটি সিন্ডিকেট করে প্রভাব বিস্তার করছে।
অভিযুক্ত বেলালের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে রামু থানার ওসি আবুল খাইর জানান, কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •