গত ২৪/১০/২০১৯ খ্রিঃ প্রকাশিত কক্সবাজার নিউজে ‘আলীকদম সরকারী হাসপাতালে ভাঙচুর, যুবকের বিরুদ্ধে মামলা’ শিরোনামের সংবাদটি আমার দৃষ্টি আকর্ষণ হয়েছে। সংবাদটি প্রতিবেদক সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যেমূলক ও মনগড়াভাবে সৃজন করে সংবাদের একাংশে ‘অভিযুক্ত যুবক ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা মামলার পর গা ঢাকা দিয়েছে’ বলে উল্লেখ করেছেন। এ তথ্যটি সর্বৈব মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। মূলতঃ আমার বিরুদ্ধে ২৩/১০/২০১৯ তারিখ মামলা রুজু হওয়ার পর ওইদিনই আমি মহামান্য আদালতে জামিন আবেদন করার জন্য বান্দরবানের উদ্দেশ্যে রওনা হই। পরদিন যথানিয়মে আমি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করি এবং মহামান্য আদালত আমার নিযুক্ত উকিলের তথ্যবহ যুক্তি শ্রবন করে সন্তোষ প্রকাশ করে আমার জামিন মঞ্জুর করেন।
মূলতঃ আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সম্প্রতিক সময়ে সংবাদ প্রকাশ ও আরো কিছু অনিয়মের তথ্য সংগ্রহ করায় আমার বিরুদ্ধে সম্পুর্ণ উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভিত্তিহীন মামলা সৃজন করা হয়। এছাড়াও আমি একজন সংবাদকর্মী ও আলীকদম প্রেসক্লাবের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হওয়া সত্তেও প্রতিবেদক আমাকে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার নিমিত্তে যুবক বলে সম্মোধন করে। সংবাদটি এ ষড়যন্ত্রেরই অংশ। সাম্প্রতিক সময়ে এই প্রতিবেদক আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্ণীতির বিরুদ্ধে কোন প্রকার সংবাদ প্রকাশ না করে উল্টো একজন সংবাদ কর্মীর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করে আমার মান সম্মান ক্ষুন্ন করেছে। অচিরেই এসব অনিয়ম ও দুর্ণীতিকারী এবং সহায়তাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
সাংবাদিকতার স্বাভাবিক নিয়ম মেনে প্রকাশিত সংবাদে আত্মপক্ষ সমর্থনে প্রতিবেদক আমার বক্তব্য নেননি। আমি উপরোক্ত শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

হিল্লোল দত্ত

আলীকদম ,বান্দরবান পার্বত্য জেলা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •