কানাডায় আবারও জয়ী জাস্টিন ট্রুডো

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
কানাডার ৪৩তম জাতীয় নির্বাচনে আবারও জয়ী হয়েছে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টি। ফলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে তারা। তবে নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সংখ্যালঘু হিসেবে ক্ষমতায় যেতে হবে লিবারেল পার্টিকে।

নির্বাচনে ট্রুডোর লিবারেল পার্টি ১৫৬ আসনে জয়লাভ করেছে। মোট ৩৩৮টি আসনের নির্বাচনে সরকার গঠনের জন্য তার দলকে কমপক্ষে ১৭০টি আসনে জয়লাভ করতে হতো। আর মাত্র ১৪ আসনের জন্য লিবারেল পার্টি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। ফলে দ্বিতীয় মেয়াদে ট্রুডোকে গুরুত্বপূর্ণ কোনো আইন পাস করতে বেশ বেগ পেতে হবে।

এই নির্বাচনে ট্রুডোর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল কনজারভেটিভ পার্টির অ্যান্ড্রু শের। নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে ধারণা করা হলেও প্রথম থেকেই এগিয়ে ছিল লিবারেল পার্টি। ভোটের ফলাফল দেখে জানা যায় লিবারেল পার্টির প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১২২ আসন। গতবারের নির্বাচনে তারা ৯৫ আসনে জয়ী হয়েছিল।

নির্বাচনে জয়ের পর মন্ট্রিলে সমর্থকদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো বলেন, আপনারা এটা করে দেখিয়েছেন আমার বন্ধুরা। আপনাদের স্বাগত। যারা তাকে ভোট দিয়েছেন তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমার ওপর আস্থা রাখার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ।

বিরোধী কনসারভেটিভ পার্টি ভোটের আগে ট্রুডোর বিরুদ্ধে বড় ধরনের দুটি কেলেঙ্কারির অভিযোগ আনে। ফলে নির্বাচনে ট্রুডোকে বেশ অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে।

চার বছর আগে সত্যিকারের পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে বিশাল এক বিজয়ের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেন জাস্টিন ট্রুডো।
২০১৫ সালে ট্রুডো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের সময় তার মন্ত্রিসভায় নারী-পুরুষের সমান অংশগ্রহণের কারণে বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমে শিরোনাম হয়েছিলেন। যা তার দলের প্রধান গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য বলে তিনি প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন।

‘কারণ এটা ২০১৫ সাল’ স্মিত হেসে এমন মন্তব্য করেছিলেন প্রথমবারের মতো ক্ষমতায় আসা এই প্রধানমন্ত্রী। তার এই তিনটি শব্দ সে সময় সারা বিশ্বে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী এবং লিবারেল পার্টির সাবেক নেতা পিয়েরে ট্যুডোর সন্তান জাস্টিন ট্রুডো। বাবার দেখানো পথেই এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সোমবার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মন্ট্রিলে ভোট দেন ট্রুডো। গত চারদিন ধরে সারাদেশে নির্বাচনী প্রচারণায় বেশ গতিশীল দেখা গেছে তাকে। অপরদিকে নিজের নির্বাচনী জেলা সাস্কাটচেওয়ানে ভোট দেন শের।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফ পৌর আওয়ামী লীগের ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি হানিফ সম্পাদক মোঃ আলমগীর

হোলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় ২৭ নভেম্বর

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন নেই, তবু কক্সবাজারে হচ্ছে সা’দ পন্থীদের ইজতেমা 

চকরিয়ায় মার্কেটের গলি দখল করে সিঁড়ি নির্মাণের চেষ্টা, ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

রামু সরকারি কলেজের এইচএসসি ২০১৪ ব্যাচের বর্ণাঢ্য পূণর্মিলনী উৎসব সম্পন্ন

আপিলে প্রার্থীতা ফিরে পাবে সালাহ উদ্দীন কমল!

বাবরি মসজিদ : রায় বাতিল চেয়ে রিভিউ করবে মুসলিম ল বোর্ড

চকরিয়ায় সাংবাদিকের উপর হামলা, গ্রেপ্তার-১

‘জীবনঘনিষ্ঠ লেখার কারণেই হুমায়ূন আহমদ মানুষের হৃদয় স্পর্শ করতে পেরেছেন’

গ্যাস বিস্ফোরণে নিহত রামু’র এনি স্বামীর পছন্দের শাড়ীতেই বের হয়েছিল

হাইস্কুলে শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে বিনামূল্যে কনডম!

জেলা বার সভাপতি ও সেক্রেটারির সাথে সিবিআইইউ বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

কক্সবাজার জেলা মুসলিম নিকাহ রেজিষ্ট্রার সমিতি অনুমোদন

পিএসসি পরীক্ষার প্রথমদিনে রাঙামাটিতে অনুপস্থিত ৩২০ শিক্ষার্থী; বহিস্কার-৪৬

শাপলাপুর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে খালেক সহ ১৪ জনের মনোনয়ন বৈধ

রাঙামাটির সাড়ে ৬ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সেবায় ৭১ চিকিৎসক !

২৩ নভেম্বর আত্মসমর্পণ করছেন মহেশখালীর শতাধিক অস্ত্রের কারিগর ও জলদস্যু

পিএসসি-ইবতেদায়ী পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ ভাবে শুরু হলো, জেলায় অনুপস্থিত ২৮৮৩

পেকুয়া উপজেলা পরিষদে জাহাঙ্গীর আলমকে বহালে হাইকোর্টের নির্দেশ